অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন ‘শাহ মিজান শাফিউর রহমান’

অতিরিক্ত ডিআইজি হলেন ‘শাহ মিজান শাফিউর রহমান’

নিউজ ডেস্ক:

বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি পেয়েছেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান শাফিউর রহমান বিপিএম (বার), পিপিএম ।
রোববার (১৮ আগস্ট) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের পুলিশ অধিশাখা-১ এর উপসচিব ধনঞ্জয় কুমার দাস স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে পদোন্নতির এই আদেশ দেওয়া হয়।

শাহ মিজান শাফিউর রহমান নাটোর জেলার লালপুর থানার মরদহ গ্রামের শিক্ষক মরহুম হাফিজুর রহমানের ছেলে। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত রসায়ন বিভাগ থেকে উচ্চ শিক্ষা সম্পন্ন করেন। তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম বর্তমানে ইডেন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভূগোল বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন।

ব্যাক্তি জীবনে তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক। কর্মদক্ষাতা ও সেবায় বাংলাদেশ পুলিশের বিপিএম (বার), পিপিএম পদক লাভ করেন পুলিশের ২০তম বিসিএস ব্যাচের এই কর্মকর্তা। ঢাকা জেলা পুলিশের দায়িত্ব পালনকালে তিনি মাদক, সন্ত্রাস আর চাদাবাজির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়ে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়ে ছিলেন। সেসময় তার বদলী নিয়ে হতাশাও প্রকাশ করেন সুশীল সমাজ।

ঢাকা জেলার কয়েকজন সংবাদকর্মীর সঙ্গে যোগাযোগ করে জানা গেছে, অত্যন্ত বিনয়ী, সৎ আর সাহসী কর্মকর্তা হিসেবে সর্ব মহলে প্রশংসা কুড়িয়ে ছিলেন এ কর্মকর্তা। জনসাধারণের মাঝে আস্থা এবং নিরাপত্তাবোধ ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় বিভিন্ন ইউনিয়ন এবং বাজারগুলোতে জনসাধারণের সাথে আইন-শৃক্সখলা বিষয়ক নিয়মিত মতবিনিময় সভা করতেন।

এছাড়াও বিভিন্ন মসজিদ, মন্দির ও গীর্জায় এলাকার জনগণের সাথে ধর্মীয় অনুষ্ঠানসমূহে অংশগ্রহণ করে সন্ত্রাস, মাদক এবং ইভটিজিং এর নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে জনগণের মাঝে সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালু করেছিলেন। তিনি মাদক থেকে যুব সমাজকে রক্ষা করতে বিভিন্ন অঞ্চলে বিভিন্ন খেলাধূলার আয়োজনও করেছিলেন।

এর আগে তিনি লক্ষীপুর জেলা পুলিশ সুপার হিসেবেও দায়িত্বপালন করেছেন।

এছাড়াও মাত্র ১০৩ টাকায় ঢাকা জেলা পুলিশে কনেস্টেবল পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করেছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা। দুই বার জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ পেয়েছেন তিনি ‘জাতিসংঘ শান্তি পদক’।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *