কৃষকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে ডাক বিভাগকে প্রস্তুত করা হচ্ছে

কৃষকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে ডাক বিভাগকে প্রস্তুত করা হচ্ছে

তাজা খবর:

প্রান্তিক কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে ডাক বিভাগকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে প্রস্তুত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

শনিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ডাক অধিদপ্তরের বিনা মাশুলে ঢাকায় আম পরিবহন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডাকঘর প্রতিষ্ঠানটিকে খুবই গুরুত্বের সাথে দেখছেন উল্লেখ করে মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘করোনার শুরু থেকেই কৃষির প্রতি প্রধানমন্ত্রী বিশেষ গুরুত্বারোপ করে আসছেন। সেই লক্ষ্যেই কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘করোনার লকডাউনের সময় জাতীয় দায়িত্বের অংশ হিসেবে কৃষির প্রতি আমাদের গুরুত্ব দেয়ার আবশ্যকতা বিবেচনায় মানিকগঞ্জের ঝিটকা বাজার, খাগড়াছড়ি এবং রাজশাহী হয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জে কৃষকের পণ্য পরিবহনের যাত্রা আমরা শুরু করেছি। এটা সাময়িক, আমরা একে একটি স্থায়ী ব্যবস্থায় রূপ দিতে যাচ্ছি।’

‘ডাক অধিদপ্তর খুলে দিয়ে সঞ্চয় ও পেনশনভোগী মানুষদের লেনদেন চালু রাখার সুযোগ দিয়েছি। লাখ লাখ মানুষ এতে উপকৃত হয়েছে। হাজার হাজার কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। সরকার ডাক অধিদপ্তরকে জরুরি সেবার আওতাভুক্ত করে সেবার জন্য মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সুযোগ করে দিয়েছে,’ যোগ করেন তিনি।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক এজেডএম নুরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ভিডিওতে সংযুক্ত হয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. নূর-উর-রহমান, ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র, রাজশাহীর পোস্টমাস্টার জেনারেল মো. শফিকুল আলম প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

প্রসঙ্গত, করোনা সংকটকালে জনগণের জন্য অত্যাবশ্যকীয় সেবাগুলো সহজতর করতে সরকার গত ৯ মে থেকে কৃষকবন্ধু ডাক সেবা চালু করেছে। এছাড়া, বিনা মাশুলে করোনা চিকিৎসা উপকরণ পিপিই ও কিট দেশব্যাপী সিভিল সার্জন কার্যালয়গুলোতে পৌঁছানোসহ জনগণের দোরগোড়ায় নিরবচ্ছিন্ন ডাকসেবা নিশ্চিত করতে ভ্রাম্যমাণ ডাকসেবা চালু করেছে সরকার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *