ক্যাসিনোর জুয়াচক্র এখন সক্রিয় অনলাইন ও ফোনে

ক্যাসিনোর জুয়াচক্র এখন সক্রিয় অনলাইন ও ফোনে

তাজা খবর:

ক্যাসিনো কাণ্ডের পর ধরণ পাল্টেছে জুয়াড়িরা। এখন মোবাইলে বিভিন্ন অ্যাপের মাধ্যমে খেলছে বেট থ্রি সিক্সটি ফাইভ, নাইন উইকেটসসহ নানা রকম গেইম। আর, এসব গেম আশ্রয় করেই চলছে জুয়া। জুয়ার টাকা লেনদেন হচ্ছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে। নানা হাত ঘুরে সেই টাকা চলে যাচ্ছে দেশের বাইরে থাকা সুপার অ্যাডমিনের কাছে।

এমন একটি জুয়াড়ি চক্রের তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসতে শুরু করেছে আরো চমক লাগানো সব তথ্য।

অনলাইন জুয়ার আসর এখন মোবাইলে। নাইন উইকেটস ডট কম, বেট থ্রি সিক্সটি ফাইভসহ আরও নানান মাধ্যমে চলছে জুয়া খেলা। যার শুরুটা ইমেইল দিয়ে নিবন্ধনের মাধ্যমে।

অনলাইন জুয়া চক্রের তিনজনকে গ্রেপ্তারের পর গোয়েন্দারা জানতে পারেন তাদের বিস্তৃত নেটওয়ার্ক সম্পর্কে। একে একে বেরিয়ে আসতে থাকে নানা ধরনের তথ্য।

জুয়ার রাজ্যে এরা কেউ মাস্টার এজেন্ট, কেউ সুপার, কারও পরিচয় লোকাল এজেন্ট হিসেবে। সবারই রয়েছে বেনামে এমন নিজস্ব পরিচিতি। জুয়া খেলতে লাগে পিবিইউ বা পার বেটিং ইউনিট। যার এক ইউনিটের দাম একশ’ টাকা। ব্যবহারকারী মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা দেয় লোকাল এজেন্টকে।

তার কাছ থেকে টাকা যায় মাস্টার এজেন্টের কাছে। তারপর সুপার এজেন্টের হাত ঘুরে সেই টাকা পাচার হয় দেশের বাইরে থাকা সুপার অ্যাডমিনের কাছে। ফিরতি পথে পিবিইউ পৌঁছায় ব্যবহারকারী হাতে।

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের দুই কর্মকতা মাহবুব আলম ও এইচ এম আজিমুল হক বলেন, জুয়াড়িদের বেশিরভাগই তরুণ। কারণ তারা মোবাইল ব্যবহারে বেশ দক্ষ।

অনলাইন জুয়া শুধু রাজধানী ঢাকা কেন্দ্রিকই নয়, এর প্রসার ঘটেছে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে। তবে অনলাইন জুয়ার নাটের গুরুতে ধরতে অভিযান চলাচ্ছে গোয়েন্দারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *