খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রাজনৈতিক খেলায় মেতেছে বিএনপি!

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে রাজনৈতিক খেলায় মেতেছে বিএনপি!

নিউজ ডেস্ক: দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়া সুস্থ থাকলেও তার চিকিৎসা নিয়ে পরিকল্পিতভাবে সত্য গোপন করছে বিএনপি। এমনটাই অভিযোগ করেছে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)।

বুধবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে ড্যাবের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আবদুস সালাম লিখিত বক্তব্যে বলেন, বিএনপির নেতা-কর্মীদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ডাক্তারদের ওপর আস্থা নেই। যা খুবই দুঃখজনক। বিএনপি নেতারা বারবার বেগম জিয়াকে অসুস্থ বলে দেশ ও জাতির সামনে মিথ্যাচার করে যাচ্ছেন। এটা একটি জাতির জন্য অত্যন্ত লজ্জার। আমরা সকলে এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

এ প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমি আর খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে কোনো কথা বলতে চাই না। আমরা চাই খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি। কিন্তু খালেদা জিয়ার পরিবার থেকে বলা হচ্ছে প্যারোলে মুক্তি। যার মাধ্যমে স্পষ্টভাবে আমরা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছি। যা বোঝাই যাচ্ছে। আমি আর এসবের মধ্যে নেই। যার যা ইচ্ছা সে তাই করুক।

এদিকে বিষয়টিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ বলেন, দলের এক পক্ষ চায় বিনা শর্তে খালেদা জিয়ার মুক্তি। অপরপক্ষ চায় প্যারোলে মুক্তি। দুটোই অযৌক্তিক। কারণ দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত আসামীকে বিনা শর্তে মুক্তি দেয়া যাবে না। এছাড়া প্যারোলে মুক্তি চাইলে সেটাও সম্ভব নয়, কারণ চিকিৎসকদের মতে ম্যাডাম জিয়া সুস্থ। ফলে দুটো পক্ষই অযৌক্তিক কথা বলছে। আর এই কারণেই আমি কোনো পক্ষের সঙ্গেই নেই। কারণ খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে, একটি সুষ্ঠু প্রক্রিয়ার মাধ্যমে। এছাড়া এটি সম্ভব নয়।

অন্যদিকে দিনে দিনে বিএনপি একটি মিথ্যাবাদী দলে পরিণত হচ্ছে বলে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি বলছে একাধিক রোগের জটিলতার কারণে বেগম খালেদা জিয়ার হাত ও পায়ের ছোট ছোট জয়েন্টগুলোসহ বিভিন্ন জয়েন্ট ফুলে গেছে এবং তাতে তীব্র ব্যথা অনুভূত হচ্ছে। মিথ্যা বলার একটা লিমিট থাকা দরকার। একটা সুস্থ মানুষকে তারা মিথ্যার মাধ্যমে অসুস্থ বানিয়ে দিচ্ছে, ঠিক একই কায়দায় ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে মিথ্যার মাধ্যমে দেশকে লুটে পুটে খেয়েছিল বিএনপি। মূলত মিথ্যার মাধ্যমে জনগণকে প্রতারিত করার কারণেই দেশের মানুষ আজ তাদের পছন্দ করে না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *