গ্রামের আবাসন প্রকল্পে ৬৩০ কোটি টাকা দিচ্ছে সরকার

গ্রামের আবাসন প্রকল্পে ৬৩০ কোটি টাকা দিচ্ছে সরকার

ডেস্ক রিপোর্ট:

আসন্ন মুজিব শতবর্ষে দেশজুড়ে বিভিন্ন গ্রামে ২১ হাজার ৮৮টি দুর্যোগ-সহনীয় ঘর নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়কে ৬৩০ কোটি ৫৬ লাখ টাকা বিনিয়োগের অনুমতি দিয়েছে সরকার।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল গত রবিবার ৪ লাখ টন চাল ভিজিএফ বরাদ্দ থেকে ১ লাখ ৪৫ হাজার টন চাল বা ৬৩০ কোটি ৬৫ লাখ টাকায় স্থানান্তর করার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবকে অনুমতি দেন। চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ৪ লাখ টনের চালের বরাদ্দ রয়েছে যার অর্থ মূল্য হচ্ছে ১ হাজার ৭৩৯ কোটি টাকা।

গত সপ্তাহে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে আবাসন প্রকল্পটি বাস্তবায়নের অনুমোদনের জন্য অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের কাছে নতুন প্রস্তাব পাঠানো হয়। এক সপ্তাহ আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আসন্ন মুজিবের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে দরিদ্র ও অতিদরিদ্র মানুষের জন্য দেশের গ্রামাঞ্চলে ৬৮ হাজার ৩৮টি বাড়ি নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবে সম্মতি জানান। যদিও ভিজিএফ কর্মসূচির ওপর সম্ভাব্য নেতিবাচক প্রভাব নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের দ্বারা এই প্রস্তাব স্থগিত করা হয়েছিল, তবে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি পাওয়ার পরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলো আবার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়কে এ দায়িত্ব প্রদান করেছে।

প্রসঙ্গত, অর্থ মন্ত্রণালয় এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে যে এই উদ্যোগ স্থানীয় খাদ্য বাজারের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে কারণ আবাসন প্রকল্পটি ভ্যালেনারেবল গ্রুপ ফিডিং (ভিজিএফ) প্রোগ্রাম থেকে তহবিল স্থানান্তরকরণের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হবে। মুজিব বছর শুরু হবে ১৭ মার্চ, বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী। এটি আগামী বছরের ১৭ মার্চ শেষ হবে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এই সময়ে ঘরগুলো তৈরি করতে চায় যা দুটি অর্থবছরের সঙ্গে মিলিত হবে- বর্তমান ২০১৯-২০২০ এবং পরের ২০২০-২০২১।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *