ঘরে থেকেই তারা পাবেন সরকারের ঈদ উপহার

ঘরে থেকেই তারা পাবেন সরকারের ঈদ উপহার

তাজা খবর:

করোনায় যাতে নিম্ন আয়ের মানুষ ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে পারে সেজন্য সরকার প্রায় এক কোটি পরিবারকে ঈদ উপহার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। একই সঙ্গে রমজানে দুস্থ পরিবারগুলোকে আর্থিক সহায়তারও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এজন্য ৬৭১ কোটি ৪২ লাখ ২৭ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ভিজিএফ কার্ডধারী ১ কোটি ৯ হাজার ৯৪৯টি পরিবার ঘরে থেকেই সরকারের ঈদ উপহার পাবেন। মুজিববর্ষ উপলক্ষে এ অর্থসহায়তা দেওয়া হবে। এরই মধ্যে এই প্রকল্পে ৪৫০ কোটি ৪৪ লাখ ৭৭ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

সূত্রটি জানায়, পরিবারপ্রতি ১০ কেজি চালের সমমূল্য অর্থাৎ ৪৫০ টাকা হারে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। এর মধ্যে উপজেলাগুলোর জন্য ৩৯৫ কোটি ৬ লাখ ৪১ হাজার ৩৫০ টাকা এবং পৌরসভাগুলোর জন্য ৫৫ কোটি ৩৮ লাখ ৩৫ হাজার সাতশ’ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আসন্ন রমজান উপলক্ষে দেশের দরিদ্র ও দুস্থ পরিবারের জন্য ১২১ কোটি ৬৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ভিজিএফ কর্মসূচির আওতায় সারাদেশের ৬৪টি জেলার ৪৯২টি উপজেলার জন্য ৮৭ লাখ ৭৯ হাজার ২০৩টি এবং ৩২৮টি পৌরসভার জন্য ১২ লাখ ৩০

হাজার ৭৪৬টিসহ মোট এক কোটি ৯ হাজার ৯৪৯টি ভিজিএফ কার্ড রয়েছে।

এদিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় দেশের ৬৪টি জেলার চার হাজার ৫৬৮টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে দুই লাখ ৫০ হাজার টাকা হারে মোট ১১৪ কোটি ২০ লাখ টাকা মানবিক সহায়তার অর্থ ছাড় করেছে।

জানা গেছে, সারাদেশের ৩২৮টি পৌরসভায় মোট পাঁচ কোটি ৬৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। এর মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য দুই লাখ টাকা, ‘বি’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য এক লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ‘সি’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য এক লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর, গাজীপুর এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের জন্য সাত লাখ টাকা করে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ময়মনসিংহ, নারায়ণগঞ্জ, কুমিলস্না, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটির জন্য পাঁচ লাখ টাকা করে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া ৬৪টি জেলায় ‘এ’ ক্যাটাগরি দুই লাখ, ‘বি’ ক্যাটাগরি এক লাখ পঞ্চাশ হাজার এবং ‘সি’ ক্যাটাগরি জেলার জন্য এক লাখ টাকা করে মোট এক কোটি ৭৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *