জাতিসংঘের বীজ সূচকের শীর্ষ দশে বাংলাদেশের ‘লাল তীর’

জাতিসংঘের বীজ সূচকের শীর্ষ দশে বাংলাদেশের ‘লাল তীর’

তাজা খবর:

জাতিসংঘের বীজ সূচকের শীর্ষ দশে স্থান করে নিয়েছে বাংলাদেশি বীজ কোম্পানি। ওয়ার্ল্ড বেঞ্চমার্ক এলায়েন্স ও ইউনাইটেড নেশন ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রকাশিত এ সূচকে বাংলাদেশের লাল তীর সিডস লিমিটেড শীর্ষ সাতে অবস্থান করছে।

আঞ্চলিকভাবে তৈরি এ তালিকায় শীর্ষ ৩১টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের দুটি কোম্পানি রয়েছে। দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে প্রথমবারের মত সপ্তম অবস্থান দখল করেছে লাল তীর সিডস লিমিটেড।

সোমবার (২২ নভেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় কোম্পানিটি। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, একসেস টু সিড ইনডেক্স প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ওয়ার্ল্ড বেঞ্চমার্ক এলায়েন্স ও ইউনাইডেট নেশন ফাউন্ডেশন। প্রতিবেদন তৈরিতে ছয়টি সূচকের ব্যবহার করা হয়েছে। এসব সূচকের মধ্যে সক্ষমতা তৈরি, মার্কেটিং এবং সেলস, বীজ উৎপাদন, গবেষণা ও উন্নয়ন, জেনেটিক রিসোর্স অ্যান্ড ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি ম্যানেজমেন্ট, সুশাসন ও কৌশল রয়েছে। এ ছয়টি সূচকের ওপর ১০০ নম্বর দেওয়া হয়েছে। সেখানে লাল তীর সিডস পেয়েছে ৫৯ দশমিক ২ নম্বর। লাল তীর সবচেয়ে ভালো করেছে বীজ উৎপাদনে। আঞ্চলিকভাবে কোম্পানিটির সার্বিক অবস্থান সপ্তম হলেও বীজ উৎপাদনে লাল তীরের অবস্থান তৃতীয়। মার্কেটিং অ্যান্ড সেলসে চতুর্থ অবস্থানে।

গবেষণা ও উন্নয়ন এবং ক্যাপাসিটি বিল্ডিংয়ে ৬ষ্ট অবস্থানে রয়েছে লাল তীর। প্রতিষ্ঠানটির জেনেটিক রিসোর্স অ্যান্ড ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি ম্যানেজমেন্ট, সুশাসন ও কৌশলে একটু পিছিয়ে থাকায় সার্বিক অবস্থান সপ্তমে এসেছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা। তবে সামনের দিনে এ দুটি বিষয়ে উন্নয়ন করা সম্ভব হলে মনে করছেন তারা।

এ বিষয়ে লাল তীর সিডস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুব আনাম বলেন, বীজ সূচকে বাংলাদেশি কোম্পানি হিসেবে লাল তীরের এ অবস্থান অবশ্যই গৌরবের। গত কয়েক দশক ধরে দেশে বীজ শিল্পের উন্নয়নে যে অবদান লাল তীর রেখেছে তার স্বীকৃতি এটা। বৈশ্বিকভাবে দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে পারা লাল তীরের ওপর কৃষকের আস্থা প্রতিষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, দেশে ভালো বীজের জন্য উদ্ভাবন, গবেষণা ও সম্প্রসারণে কাজ করে যাচ্ছে লাল তীর। দেশে সবজি আবাদে শীর্ষস্থানীয় বীজ সরবরাহকারী হিসেবে নেতৃত্ব দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। শীত ও গ্রীষ্মকালের সবজি এখন আর কোনো স্বপ্ন নয়। ভালো বীজের কারণেই কৃষক সবজি আবাদ করে লাভবান হচ্ছেন।

বীজ সূচকের প্রতিবেদনে বলা হয়, মাল্টিমোড গ্রুপের অন্যতম সহ-প্রতিষ্ঠান লাল তীর সিডস লিমিটেড ১৯৯৫ সালে যৌথভাবে প্রতিষ্ঠা করা হয়। যার পূর্বের নাম ছিল ইস্ট-ওয়েস্ট সিড বাংলাদেশ লিমিটেড। ২০০৭ সালে লাল তীর সিড নামে প্রতিষ্ঠা পায় কোম্পানিটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *