জাতিসঙ্ঘের ৩টি সংস্থার সভাপতি

জাতিসঙ্ঘের ৩টি সংস্থার সভাপতি নির্বাচিত হলো বাংলাদেশ

তাজা খবর:

জাতিসঙ্ঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আব্দুল মুহিত ২০২৪ সালের জন্য জাতিসঙ্ঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি), জাতিসঙ্ঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ) ও জাতিসঙ্ঘ প্রকল্প সেবাগুলোর কার্যালয়ের (ইউএনওপিএস) নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। গত বুধবার জাতিসঙ্ঘ সদর দফতরে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে কলম্বিয়া, জার্মানি, রোমানিয়া ও ইথিওপিয়ার রাষ্ট্রদূতরা সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। ২০৩০ সাল পর্যন্ত উন্নয়ন এজেন্ডা বাস্তবায়নে এই তিন সংস্থার সুনির্দিষ্ট ম্যান্ডেট রয়েছে।

ইউএনডিপি দারিদ্র্য বিমোচন ও টেকসই উন্নয়নে সদস্য দেশগুলোকে সহায়তা করে থাকে। ইউএনএফপিএ জনসংখ্যা ও পরিবার-পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করে। আর শান্তি, উন্নয়ন ও মানবিক বিষয়াবলির প্রকল্প সংক্রান্ত চূড়ান্ত কাজগুলো করে ইউএনওপিএস।

জাতিসঙ্ঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধির কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশ সংস্থাগুলোর গুরুত্বপূর্ণ ম্যান্ডেট বাস্তবায়নে অবদান রাখার সুযোগ পাবে। পাশাপাশি বোর্ডের অন্যান্য সদস্য এবং এই তিনটি সংস্থার নেতৃত্বের সাথে বাংলাদেশ ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে পারবে। এ ছাড়া বিশ্বব্যাপী তাদের কার্যক্রমে কৌশলগত দিকনির্দেশনা দিতে পারবে।

স্বাগত বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত মুহিত তাকে সভাপতি নির্বাচিত করার জন্য নির্বাহী বোর্ডের সদস্যদের ধন্যবাদ জানান। তিনি বিশ্বব্যাপী জনগণের ক্ষমতায়ন এবং তাদের উন্নয়নের আকাক্সক্ষাকে এগিয়ে নেয়ার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখার জন্য সংস্থাগুলোর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

২০২২ সালে জাতিসঙ্ঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দেয়ার পর থেকে রাষ্ট্রদূত মুহিত জাতিসঙ্ঘ শান্তি বিনির্মাণ কমিশনের সভাপতি, ইউএন উইমেনের নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি এবং ইউএনডিপি, ইউএনএফপিএ, ইউএনওপিএসের সহ-সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *