ডিজিটাল বাংলাদেশ : ৩ এজেন্ডা নিয়ে কাজ করছে সরকার

ডিজিটাল বাংলাদেশ : ৩ এজেন্ডা নিয়ে কাজ করছে সরকার

তাজা খবর:

ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়নে সরকার ইতোমধ্যে ডিজিটাল অর্থনীতির তিনটি এজেন্ডা হাতে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এজেন্ডাগুলো হচ্ছে- প্রযুক্তি দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তোলা, দেশের সব নাগরিককে ব্রডব্যান্ড সংযোগের আওতায় নিয়ে আসা এবং ক্যাশলেস সোসাইটি গড়ে তোলা।

‘বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তান : আইসিটি সহযোগিতা প্রসারের সম্ভাবনা’ বিষয়ে উভয় দেশের ব্যবসায়ীর প্রতিনিধি দলের সঙ্গে উজবেকিস্তানের রাজধানী তাসখন্দ ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস সেন্টারে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ তথ্য জানান।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত এ সভায় পলক জানান, মোবাইল ব্যাংকিং থেকে ডিজিটাল ওয়ালেটে রূপান্তরের কাজ চলছে। দেশের নারীরা ফ্রিল্যান্সিংয়ে উল্লেখযোগ্য হারে এগিয়ে আসছেন।

সভায় বাংলাদেশের আইসিটি খাতের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি ও শিল্প বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। উজবেকিস্তানের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন উজবেকিস্তান এফবিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট আদখাম ইকরামভ।

সভায় দুই দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সর্বশেষ অগ্রগতি তুলে ধরা হয়। পাশাপাশি এই খাতে বিনিয়োগ ও বাণিজ্যসহ উন্নয়ন এবং বিকাশে যৌথভাবে কাজ করার ক্ষেত্রগুলো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সর্বশেষ অগ্রগতি বিস্তারিতভাবে এ সময় উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তান দীর্ঘ পরীক্ষিত বন্ধু। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে তথা জ্ঞানভিত্তিক প্রযুক্তিনির্ভর অর্থনীতি গড়ে তুলতে ২০০৮ সালে রূপকল্প : ২০২১ ঘোষণা দেন। এর ফলে বাংলাদেশে ডিজিটাল অর্থনীতি দ্রুত বিকাশ লাভ করছে।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, দেশের প্রায় ১২ কোটির মতো মানুষ এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। আর এটি ডিজিটাল অর্থনীতির সবচেয়ে সম্ভাবনাময় দিক বলে তিনি উল্লেখ করেন। এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশ ব্যবসা-বাণিজ্যসহ অর্থনীতিতে দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক গ্রুপের (আইএসডিবি গ্রুপ) বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের নেতৃত্বে তাসখন্দে এক সরকারি সফরে রয়েছেন ১৪ সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল।

প্রতিনিধি দলের সদস্যদের মধ্যে রয়েছেন- এফবিসিসিআই সাবেক সভাপতি মীর নাসির, বর্তমান সহ-সভাপতি এম এ রাজ্জাক খান রাজ, বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএম) সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, ই-ক্যাব সভাপতি শমী কায়সার, বিসিএস সভাপতি শাহিদ উল মুনীরসহ অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *