নারীর অগ্রগতিতে দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ

নারীর অগ্রগতিতে দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষে বাংলাদেশ

ডেস্ক নিউজ:

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বর্তমান সরকার সব ক্ষেত্রে নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করছে। শিক্ষা, রাজনীতি, কর্মসংস্থানে নারীর অগ্রগতিতে দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

গতকাল বুধবার বিকেলে রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বেইজিং ঘোষণা ও কর্মপরিকল্পনার ২৫ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে সমাবেশ ও সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বেইজিং ঘোষণা এবং কর্মপরিকল্পনা নারীর ক্ষমতায়নের জন্য স্বপ্নদর্শী এজেন্ডা। এটির মাধ্যমে সমগ্র বিশ্বের সরকার সমূহ ঐক্যমতে আসে জেন্ডার দৃষ্টিভঙ্গির চর্চা এবং জেন্ডার সমতা প্রতিষ্ঠার জন্য।

সংগঠনের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ডা. ফওজিয়া মোসলেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ইউএন উইমেন বাংলাদেশ এর কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ শোকো ইশিকাওয়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক এবং জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কল্যাণ ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক তৌহিদুল হক।

স্বাগত বক্তব্যে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু বলেন, বেইজিং ঘোষণা এবং কর্মপরিকল্পনা ছিল নারী আন্দোলনের জন্য এক মাইলফলক অর্জন। বাংলাদেশে ২৫ বছরে নারীর অগ্রগতির জন্য অর্জন হয়েছে। রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে ও বাংলাদেশ মডেল হিসেবে পরিচিত।

সভায় বেইজিং ঘোষণা ও কর্মপরিকল্পনার ২৫ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে ঘোষণা পাঠ করেন টার্নিং পয়েন্ট-এর অ্যাডভোকেসি অফিসার শিখা খাতুন। সঙ্গীত পরিবেশন করেন সংগঠন সদস্য শিল্পী আখতার, সুরাইয়া পারভীন, রোকেয়া সদনের শিল্পীবৃন্দ এবং ব্যান্ডদল এফ মাইনর। পটগান পরিবেশন করে রূপান্তর।

সমাবেশ সঞ্চালনা করেন ব্র্যাক এর জেন্ডার জাস্টিস অ্যান্ড ডাইভারসিটি বিভাগের প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর নিশাত সুলতানা এবং মহিলা পরিষদের অ্যাডভোকেসি ও লবি পরিচালক জনা গোস্বামী।

প্রসঙ্গত, বেইজিং ঘোষণা ও কর্মপরিকল্পনার ২৫ বছর পূর্তি উদযাপন কমিটির উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কমিটির সদস্য সংগঠনগুলো হচ্ছে- আইন ও সালিশ কেন্দ্র, ব্র্যাক, ব্লাস্ট, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন, অভিযান, নারী প্রগতি সংঘ, জাগো ফাউন্ডেশন, প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল, এনগেজ মেন অ্যান্ড বয়েজ নেটওয়ার্ক, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, ঢাকা ওয়াইডব্লিউসিএ, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ এবং টার্নিং পয়েন্ট।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *