প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে

নাশকতাকারীদের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে : আইজিপি

তাজা খবর:

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশজুড়ে ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

ভোটারদের আশ্বস্ত করে তিনি বলেন, আপনারা নিরাপদে নির্বিঘ্নে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন, পুলিশ আপনাদের পাশে আছে। আশা করছি, আমরা উৎসবমুখর পরিবেশে একটি সুন্দর নির্বাচন উপহার দিতে পারব।

শনিবার (৬ জানুয়ারি) রাতে রাজধানীর বেইলি রোডে সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

আইজিপি বলেন, আগামীকাল দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে সামগ্রিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা চূড়ান্ত করা হয়েছে। আমাদের পুলিশ সদস্যরা আজ রাত থেকেই কেন্দ্রে কেন্দ্রে অবস্থান করছে।

আগামীকাল সকল নাগরিক ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য কেন্দ্রে আসবেন। নির্বাচনী দায়িত্ব পালনের জন্য পুলিশ-আনসার, প্রিসাইডিং অফিসার, পুলিং অফিসাররা কেন্দ্রে চলে এসেছেন সশস্ত্র বাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। ম্যাজিস্ট্রেট, প্রশাসন মিলে আমরা নির্বাচন কমিশনের অধীনে সকলে মিলে দায়িত্ব পালন করব। আশা করি সুষ্ঠুভাবে নির্বাচনী দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে সক্ষম হব।

তিনি বলেন, মোবাইল টিম, স্ট্রাইকিং টিম, রিজার্ভ ফোর্স, কুইক রেসপন্স টিম, ডগ স্কোয়াড, র্যাবের হেলিকপ্টারসহ সমগ্র জনবল নিয়ে পুলিশ নির্বাচনের দায়িত্ব পালনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। আশা করি, নির্বাচন সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন ঘিরে যেকোনো নাশকতা করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নাশকতাকারীর তথ্য দিলে ২০ হাজার থেকে লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। তথ্যের গুরুত্বানুসারে সেই পুরস্কারের অর্থ ২-৩ লাখও হতে পারে। তবে তথ্যদাতার পরিচয় গোপন রেখে, নাশকতাকারীর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, ইতোপূর্বে গাজীপুরে ট্রেনে নাশকতার ঘটনায় মামলার রহস্য উদঘাটন করা হয়েছে, কারা ঘটিয়েছে আপনাদের কাছে বিষয়টি পরিষ্কার। আমরা মাগুরাতে একজন ধরেছি, তার মোবাইল থেকে জানা গেছে, তাদের নির্দেশনা রয়েছে সারাদেশে পটকা, ককটেল ফুটিয়ে আতঙ্ক পরিবেশ সৃষ্টি করা। আমি স্পষ্টভাবে বলতে চাই, নাশকতাকারীদের সকল প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে, কিছু প্রচেষ্টা করা হয়েছিল, সেগুলো প্রতিহত করা হয়েছে।

ভোটকেন্দ্রে নাশকতার চেষ্টা হোক বা বাধাগ্রস্ত করা হোক, অথবা প্রার্থীরা নিজেরা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে চাইলে কারও কাছে কোন তথ্য থাকলে আমাদের জানাবেন। সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমাদের প্রতিটি ইউনিটের মোবাইল টিমগুলো প্রস্তুত রয়েছে।

ভোটারদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা নিরাপদে নির্বিঘ্নে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন, পুলিশ আপনাদের পাশে আছে। আশা করছি উৎসবমুখর পরিবেশে সুন্দর একটি নির্বাচন উপহার দিতে পারব। সকল ভোটাররা ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে অক্ষুণ্ন রাখতে ভোটকেন্দ্রে আসবেন। আমরা সবাইকে আশ্বস্ত কতে চাই, সমস্যা হলে আমাদের জানান। আমরা বাংলাদেশ পুলিশ ভোটের পরিবেশ নিশ্চিত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।

বেনাপোল এক্সপ্রেসে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা কিছু আসামি গ্রেপ্তার করেছি, তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। তদন্তের স্বার্থে এখনই কিছু বলছি না, তাদের জিজ্ঞাসাবাদে ধারণা পরিষ্কার করার চেষ্টা করব। আমরা এখনো তদন্ত করছি। আপাত দৃষ্টিতে মনে হয়েছে ট্রেনের ভেতর থেকে আগুন লাগানো হয়েছে। তবে যখন নিশ্চিত হব, তখন আমরা সকল তথ্য জানাব।

ট্রেনে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা সিসিটিভি ক্যামেরা সবগুলো ট্রেনে স্থাপন করছি। বেনাপোল এক্সপ্রেসে এখনো স্থাপন করা হয়নি। এটি স্থাপন করতে সময় লাগে, আমরা এখনো সবগুলা শেষ করতে পারিনি।

তেজগাঁওয়ে ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে জানতে চাইলে আইজিপি বলেন, আমরা রহস্য উদঘাটনে কাজ করছি। যখন পূর্ণাঙ্গ তথ্য পাব আপনাদের জানাব। গাজীপুরের তথ্য যখন পেয়েছি, সবাইকে অবহিত করেছি।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের নিরাপত্তার ঘাটতি ছিল না। দুষ্কৃতকারীরা কাউকে জানিয়ে কিছু করে না। হঠাৎ করে ঘটনা ঘটিয়ে পালিয়ে গেছে। আমরা সবাই প্রস্তুত আছি, যখনই এমন ঘটনা সম্পর্কে তথ্য পাব ব্যবস্থা নিব। তবে দেশব্যাপী বড় ধরনের নাশকতার কোনো সক্ষমতা নেই।

আগামীকাল কোনো নাশকতার হুমকি আছে কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এখনো এমন কোন আশঙ্কা করছি না। সারাদেশে ৪২ হাজার ২৫টি ভোটকেন্দ্র রয়েছে। দুষ্কৃতকারীরা ৮-৯টা কেন্দ্রে হয়ত নাশকতার চেষ্টা করেছে। কিন্তু তারা প্রকাশ্যে কিছু করার সাহস পায় না। দেশবাসী ভোটাধিকার প্রয়োগের জন্য প্রস্তুত। দেশবাসীর সহায়তায় সকল ভোটকেন্দ্রে নিরাপত্তা বলয় তৈরি থাকবে। জনগণ ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে, আমরা সহায়তা করছি মাত্র। আমরা আমাদের দায়িত্ব পেশাদারিত্বের সঙ্গে যেভাবে দরকার সেভাবে পালন করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *