বঙ্গবন্ধুর ওপর নির্মিত ডকুমেন্টারি হস্তান্তর

বঙ্গবন্ধুর ওপর নির্মিত ডকুমেন্টারি হস্তান্তর

তাজা খবর:

জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো বলেছেন, করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে তার দেশ বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করবে। তিনি গতকাল রবিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব ইহসানুল করিম বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। জাপানের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর কাছে এ সময় জাতির জনকের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে জাপানের প্রধানমন্ত্রীর একটি বার্তা হস্তান্তর করেন। তিনি ১৯৭৩ সালে জাপানে জাতির পিতার সফরের ওপর নির্মিত ‘ওয়েলকাম বঙ্গবন্ধু (১৯৭৩)’ শিরোনামে একটি ভিডিও ডকুমেন্টারি হস্তান্তর করেন। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রদূতকে জানান, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালের নির্মাণকাজ সম্পন্ন হওয়ার পর এটি জাপান ও বাংলাদেশ যৌথভাবে পরিচালনা করবে তিনি সেটা চান। কভিড-১৯ পরিস্থিতিতেও মাতারবাড়ী প্রকল্পের কাজ চলছে বলে প্রধানমন্ত্রীকে জানান জাপানি রাষ্ট্রদূত। তিনি আরো বলেন, মাতারবাড়ী একটি শিল্পকেন্দ্র হবে এবং এটি বাংলাদেশের ভাগ্য বদলে দেবে। এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, ‘মাতারবাড়ী প্রকল্পটি চালু হলে এটি বাংলাদেশের অর্থনীতিতে বিরাট অবদান রাখবে।’ জাপানি রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীকে আরো জানান, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার অর্থনৈতিক অঞ্চল আগামী বছরের মধ্যে উৎপাদনে যাবে। তিনি বলেন, মীরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল হবে জাপানের দ্বিতীয় বৃহত্তম একটি অঞ্চল। রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীর কাছে জাতির জনকের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে জাপানের প্রধানমন্ত্রীর একটি বার্তা এবং ১৯৭৩ সালে জাপানে জাতির পিতার সফরের ওপর নির্মিত ‘ওয়েলকাম বঙ্গবন্ধু (১৯৭৩)’ শিরোনামে একটি ভিডিও ডকুমেন্টারি হস্তান্তর করেন। এ সময় জাপানে বঙ্গবন্ধুর সফরের কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর ছোট বোন রেহানা এবং ছোট ভাই শেখ রাসেল বাবার সঙ্গে ছিলেন। শেখ হাসিনা বার্তা ও ভিডিও ডকুমেন্টারি পাঠানোর জন্য জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *