এই ধারণা সঠিক নয়’

‘বর্জন মানেই নির্বাচন গ্রহণযোগ্যতা পাবে না, এই ধারণা সঠিক নয়’

তাজা খবর:

কোনো রাজনৈতিক দল নির্বাচন বর্জন করলে সেটি গ্রহণযোগ্যতা পাবে না, এ ধারণা সঠিক নয় বলে মন্তব্য করেছেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিজিটিং প্রফেসর উইলেম ভ্যান ডার গেস্তা। নির্বাচন বর্জন করা দুঃখজনক বলে মনে করেন তিনি।

সোমবার (৮ জানুয়ারি) রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে দক্ষিণ এশিয়া ডেমোক্রেটিক ফোরামের করা সংবাদ সম্মেলনে এ মন্তব্য করেন উইলেম গেস্তা।

উইলেম গেস্তা বলেন, নির্বাচনে সহিংসতা হয়নি বলে বহু মানুষের জীবন রক্ষা পেয়েছে। ভবিষ্যতে বাংলাদেশের নির্বাচনে কোনো সহিংসতা যেন না হয় তেমনটাই প্রত্যাশা করি। নির্বাচন বর্জন দুঃখজনক। বর্জন মানে নির্বাচন গ্রহণযোগ্যতা পাবে না, এই ধারণা সঠিক নয়। নির্বাচন কোনো খেলা নয়। এখানে বর্জন খুব বেমানান।

তিনি বলেন, নারীরা তাদের ভোট প্রয়োগ করেছেন। তৃতীয় লিঙ্গের মানুষও ভোট দিয়েছে, সবাই ভোট দেওয়ার সুযোগ পেয়েছে; এটা সন্তুষ্টির বিষয়। এজন্য নির্বাচন কমিশন ধন্যবাদ পাওয়ার দাবিদার।

বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোকে তিক্ততা থেকে বেরিয়ে আসার পরামর্শ দিয়ে গেস্তা বলেন, রাজনৈতিক মেরুকরণ খুব তিক্ত একটি বিষয়। রাজনৈতিক দলগুলোকে এটা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। সবাইকে সমাধানে পথে আসতে হবে, ছাড় দেওয়ার মানসিকতা রাখতে হবে। যেহেতু বাংলাদেশ স্বাধীন করার পেছনে সবার অংশগ্রহণ ছিল তাই আমি মনে করি গণতান্ত্রিক পথে থাকতে সবাইকে অংশ নিতে হবে।

দক্ষিণ এশিয়া ডেমোক্রেটিক ফোরামের নির্বাহী পরিচালক পাওলো কাজাকা বলেন, কম ভোটারদের উপস্থিতি গুরুত্বপূর্ণ নয়। আমরা পুরো সময় ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত ছিলাম। আমরা সন্তুষ্ট, পুরো নির্বাচন নিয়ে। এই ভোট নিয়ে সমালোচনার কিছু নেই। তবে ভবিষ্যতে বাংলাদেশের নির্বাচনগুলো আরও অংশগ্রহণমূলক হবে বলে আমি আশা করছি। কেননা, সবাই নির্বাচন প্রক্রিয়ার অংশ। সবাইকে সহযোগিতার মানসিকতা থাকতে হবে। সবার মধ্যে ভালো মানসিকতা ধারণ করতে হবে।

ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মার্ক জ্যাকসন বলেন, আমরা জ্বলন্ত ট্রেনের ধারণা মাথায় রেখে ভোট কেন্দ্রে গিয়েছিলাম। ভেবেছিলাম এ রকম সহিংসতা কিছু হবে। শঙ্কা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। নির্বাচন প্রক্রিয়া নিয়ে আমি উল্লেখ করার মতো যে বিষয়টি বলতে পারি, সেটি হলো মানুষ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পেরেছে। নিয়ম মেনে প্রত্যেকটি ধাপ সম্পন্ন হয়েছে, যা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় জন্য প্রত্যাশিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *