বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক এগিয়ে নিতে চায় ইইউ

তাজা খবর:

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক এগিয়ে নিতে চায় ২৭ দেশ নিয়ে গঠিত জোট ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইউ)। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক বহু বছরের উল্লেখ করেছেন ঢাকায় ইইউ প্রতিনিধিদলের প্রধান চার্লস হুইটলি। গতকাল বুধবার সচিবালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈঠকের পর উপস্থিত সাংবাদিকদের ব্রিফ করে তিনি এ কথা জানান।

চার্লস হুইটলি বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সঙ্গে এটি আমার প্রথম বৈঠক। বেলজিয়ামের সঙ্গে তার জোরালো সম্পর্ক রয়েছে। কারণ, তিনি সেখানেই লেখাপড়া করেছেন। আর বেলজিয়াম হচ্ছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান কার্যালয়। বৈঠকে ইইউ-বাংলাদেশের সম্পর্ক নিয়ে আমাদের মধ্যে বিস্তর আলোচনা হয়েছে। আপনারা জানেন, আমাদের অনেকগুলো এজেন্ডা রয়েছে। শিগগির নতুন পার্টনারশিপ কো-অপারেশন অ্যাগ্রিমেন্টে (পিসিএ) সই করতে যাচ্ছি আমরা।এটি অনেক ব্যাপক ও নতুন প্রজন্মের চুক্তি।

ইইউ রাষ্ট্রদূত বলেন, আমাদের বৈঠক খুবই ফলপ্রসূ হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ইইউ-বাংলাদেশ সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাবে বলে আমি প্রত্যাশা করছি।

বাংলাদেশ-ইউরোপীয় ইউনিয়নের সম্পর্কের ভবিষ্যৎ প্রসঙ্গে চার্লস হুইটলি বলেন, আমি মনে করি, নতুন অংশীদারত্ব সহযোগিতা চুক্তির (পিসিএ) ভিত্তিতে আগামী পাঁচ বছরে আমাদের সম্পর্কের ক্ষেত্রে একটি বড় পরিবর্তন আসবে। ২০০১ সাল থেকে বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের যে চুক্তি রয়েছে, সেটির চেয়ে এটির (পিসিএ) ধরন অনেকটা রাজনৈতিক। কারণ, আগের চুক্তি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে উন্নয়ন সহযোগিতার। যা এখনো বর্তমান আছে।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি অংশ নেয়নি বলে নিজের বিবৃতি বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে হুইটলি বলেন, এ বিষয়ে কথা হয়নি। আমরা এ বিষয়ে বিবৃতি দিয়েছি। আজকের আলোচনা খুবই ফলপ্রসূ ছিল। কীভাবে আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে আধুনিক সম্পর্ক এগিয়ে নিতে পারি, সেটাই ছিল আমাদের আলোচনার বিষয়। আমাদের নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ দল এই শহরে ছিলেন। তারা নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *