বাংলাদেশে বিনিয়োগে ফিলিপাইনের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির

বাংলাদেশে বিনিয়োগে ফিলিপাইনের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির

তাজা খবর:

বাংলাদেশ বিনিয়োগের আকর্ষণীয় সুযোগ-সুবিধা রয়েছে জানিয়ে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগে ফিলিপাইনের ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বুধবার বঙ্গভবনে ফিলিপাইনের নতুন রাষ্ট্রদূত অ্যালান এল ডেনিয়েগা রাষ্ট্রপতির কাছে তার পরিচয়পত্র পেশ করার সময় তিনি এ আহ্বান জানান।

দেশটির নতুন দূত বঙ্গভবনে এসে পৌঁছালে প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্টের একটি চৌকস দল তাকে গার্ড অফ অনার দেয়। দেশটির নতুন রাষ্ট্রদূতকে বাংলাদেশে স্বাগত জানান রাষ্ট্রপতি।

এসময় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, ‘বাংলাদেশ বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আকর্ষণীয় সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে এবং এ লক্ষ্যে ১০০ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন করেছে।’

তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার পর বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়া দেশগুলোর মধ্যে ফিলিপাইন অন্যতম। ফিলিপাইনের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার।’

বাংলাদেশ ও ফিলিপাইন নার্সিং, কৃষি প্রক্রিয়াকরণসহ বিভিন্ন খাতে যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে লাভবান হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন রাষ্ট্রপতি।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের বিশ্বমানের তৈরি পোশাক, ওষুধ, কারুপণ্য ও মাঝারি আকৃতির জাহাজ উৎপাদন করে।’

রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশ থেকে এসব পণ্য আমদানিতে ফিলিপাইনের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে সরকারি-বেসরকারি সফর বিনিময়ের ওপরও গুরুত্বারোপ করেন।

নতুন রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। একই সঙ্গে তিনি ঢাকায় দায়িত্ব পালনে রাষ্ট্রপতির সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীন এবং সচিব (সংযুক্ত) ওয়াহিদুল ইসলাম খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *