বাংলাদেশ-এডিবির ৩০ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি সই

তাজা খবর:

বাংলাদেশ সরকার ও এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি) ৩০ কোটি ডলারের ঋণচুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। সোমবার (১৪ আগস্ট) বাংলাদেশের পক্ষ থেকে চুক্তি স্বাক্ষর করেন অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের শরিফা খান এবং এডিবির পক্ষ থেকে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর এডিমন গিন্টিং।

‘শহরের পরিচালনা পদ্ধতি এবং অবকাঠামো উন্নয়ন’ নামের এক প্রকল্পের আওতায় চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়।

ওই কর্মসূচিতে নগর পরিচালনাকে দৃঢ় করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বাংলাদেশের পৌরসভা উন্নয়ন পরিকল্পনার অধীনে পৌর সেবাকে উন্নত করতে বিনিয়োগ করা হবে।

মূলত পৌরসভার বাসযোগ্যতা উন্নত করতে সমন্বিত ও টেকসই নগর উন্নয়ন অর্জনে সহায়তা করবে চুক্তিটি। এডিবি বলছে, আখেরে এর সুফল ভোগ করবে বাংলাদেশের ৭৬ লাখ মানুষ।

কান্ট্রি ডিরেক্টর এডিমন গিন্টিং বলেন, ’বাংলাদেশকে ২০৩০ সাল নাগাদ মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরের জন্য জলবায়ু সহনশীল ও টেকসই নগর উন্নয়ন বেশ গুরুত্বপূর্ণ।… এই প্রকল্প আরও অর্থবহ পৌর সংস্কার অর্জনের লক্ষ্যে একটি কর্মক্ষমতাভিত্তিক পন্থা অন্তর্ভুক্ত করবে।’

গিন্টিং আরও জানান, এই ঋণের কারণে অংশগ্রহণকারী পৌরসভাগুলোর আয় ব্যবস্থাপনা প্রক্রিয়ার মতো বিভিন্ন খাতে নজর রাখা ও মূল্যায়ন ব্যবস্থাগুলো ডিজিটালাইজ করা সম্ভব হবে। নারী নেতৃত্বের মতো বিষয়গুলো সামনে আসবে।

জানা গেছে, প্রকল্পে অন্তত ৯০০ কিলোমিটার স্টর্মওয়াটার নিষ্কাশন উন্নত করা হবে। ১ হাজার ৫০০ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক পুনর্নির্মাণ করা হবে এবং নারী ও পিছিয়ে থাকা জনগোষ্ঠীর প্রয়োজনীয়তার ভিত্তিতে সরকারি সুবিধা সংস্কার ও উন্নত করা হবে।

মোট ঋণের প্রায় ৬০ শতাংশই জলবায়ুসংশ্লিষ্ট তহবিল। এ প্রকল্প আরও ২০ কোটি ডলারের আর্থিক তহবিল পাবে এজেন্সে ফ্রান্সাইস ডে ডেভেলপ্পেমেন্ট-এর কাছ থেকে। আর সরকারের পক্ষ থেকে প্রকল্পটিতে দেওয়া হবে প্রায় ১৮ কোটি ৯০ লাখ ডলার।

বাড়তি হিসেবে এডিবি কারিগরি সহায়তার জন্য ১০ লাখ ডলার অনুদান দেবে নিজেদের টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্স স্পেশাল ফান্ড থেকে। এ ছাড়াও প্রকল্প বাস্তবায়নে সহায়তার লক্ষ্যে জাপান ফান্ড ফর প্রসপেরাস অ্যান্ড রেসিলিয়েন্ট এশিয়া অ্যান্ড প্যাসিফিক থেকে আসবে ১০ লাখ ডলার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *