নির্দেশ হাইকোর্টের

বায়ুদূষণে জরুরি সতর্ক বার্তা দেয়ার নির্দেশ হাইকোর্টের

তাজা খবর:

বায়ুর মানমাত্রা অস্বাস্থ্যকর, অতি অস্বাস্থ্যকর ও বিপজ্জনক পর্যায়ে পৌঁছালে তা থেকে জনসাধারণকে রক্ষায় এলার্ট সিস্টেম চালুর মাধ্যমে জরুরি সতর্কীকরণ বার্তা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম এবং বিচারপতি মো. আতাবুল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) করা রিটের মামলায় ২০২২ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির আদেশ বাস্তবায়ন চেয়ে এ আবেদন করা হয়। আবেদনে বেলার পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট এস হাসানুল বান্না। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সেলিম আযাদ সরকার।

পরে হাসানুল বান্না বলেন, বায়ুদূষণ পর্যবেক্ষণকারী সুইজারল্যান্ডভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা এয়ার ভিজুয়ালের পর্যবেক্ষণ (এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স) অনুযায়ী ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের শেষ ১ সপ্তাহ এবং চলতি বছরের জানুয়ারির অধিকাংশ দিনে রাজধানী ঢাকার বায়ুর মান অস্বাস্থ্যকর, অতি অস্বাস্থ্যকর ও ‘বিপজ্জনক’ পর্যায়ে থাকা সত্ত্বেও তা থেকে জনসাধারণকে রক্ষায় আদালতের নির্দেশ ও বায়ুদূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা, ২০২২ এর বিধি ১৩(৫) অনুযায়ী কোনোরকম সতর্কীকরণ বার্তা দেয়া হয়নি। এ কারণে বেলা আবেদন করে।

শুনানি শেষে আদালত বায়ুদূষণের প্রধান উৎসগুলো ও কার্যক্রম চিহ্নিত করতে ও বায়ুদূষণ হ্রাস করতে বিবাদীদের সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নের নির্দেশ দিয়েছেন। একইসঙ্গে আদালত বিবাদীদের বায়ুর মানমাত্রা অস্বাস্থ্যকর, অতি অস্বাস্থ্যকর ও বিপজ্জনক পর্যায়ে পৌঁছালে তা থেকে জনসাধারণকে রক্ষায় আত্ম-সুরক্ষামূলক ব্যবস্থা নেয়ার দিকনির্দেশনা দিয়ে এলার্ট সিস্টেম চালুর মাধ্যমে জরুরি সতর্কীকরণ বার্তা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি নির্দেশ প্রতিপালনবিষয়ক প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *