মালয়েশিয়া যাচ্ছেন শ্রমিকরা

বিনা পয়সায় মালয়েশিয়া যাচ্ছেন শ্রমিকরা

তাজা খবর:

তৃতীয় দফায় বিনা পয়সায় মালয়েশিয়ায় কাজ করতে যাচ্ছেন আরো ৬৫ জন বাংলাদেশের কর্মী। বৃহস্পতিবার তারা ঢাকা থেকে কুয়ালামপুরের উদ্দেশে রওনা হবেন।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর স্বল্প ব্যয়ে ও বিনা খরচে কর্মী প্রেরণের কর্মসূচির আওতায় এসব কর্মী পাঠানো হচ্ছে। কর্মসূচিটি ব্যবস্থাপনা ও বাস্তবায়নে রয়েছে ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল।

বেসরকারি রিক্রুটিং এজেন্সি ক্যাথারসিসের তত্ত্বাবধানে এর আগে সম্পূর্ণ বিনা খরচে ১৯ জুন প্রথম ব্যাচে ২০ কর্মী মালয়েশিয়ায় যায়। ২৭ আগস্ট যান আরো ৩১ কর্মী।

২০২৩ এর জুনে শুরু হওয়া ‘জিরো কস্ট মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম’-এর আওতায় এসব কর্মীর সম্পূর্ণ খরচ বহন করবেন নিয়োগকর্তা।

তৃতীয় দফায় ৬৫ জন তরুণ কর্মী পাঠানোর সব আয়োজন সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী ও বায়রার সাবেক মহাসচিব মো. রুহুল আমিন স্বপন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে নিজেদের ভাগ্য বদলে এসব তরুণ কুয়ালালামপুর উড়াল দেবেন।

বিনা খরচে মালয়েশিয়ায় যাওয়া প্রতি কর্মীর মূল বেতন হবে দেড় হাজার মালয়েশিয়ান রিঙ্গিট। আর এর সঙ্গে দুই ঘণ্টা ওভারটাইমসহ প্রতি মাসে তাদের আয় হবে ৫৫ হাজার বাংলাদেশি টাকার সমান।

পাশাপাশি কর্মীদের আবাসন, বীমা, চিকিৎসা ও কল্যাণের বিষয়টিও নিয়োগকর্তা নিশ্চিত করবেন।

আটকে আছে এক লাখ কর্মীর মালয়েশিয়া যাত্রাআটকে আছে এক লাখ কর্মীর মালয়েশিয়া যাত্রা

মালয়েশিয়াতে বর্তমানে দুই লাখের মতো প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছে। সম্প্রতি মালয়েশিয়া সরকার বাংলাদেশ থেকে আরো ৪ লাখ ২৭ হাজার কর্মী নেয়ার বিষয় অনুমোদন দিয়েছে।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, বিনা খরচে কর্মী পাঠানোর চলমান কর্মসূচি ঠিকমতো বাস্তবায়ন করা গেছে আগামী বছরগুলোতে একই কায়দায় আরো বেশি কর্মী পাঠানো যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *