বিমানবালার বেশে পরীমনি, মাখামাখিতে কাটলো রাত

বিমানবালার বেশে পরীমনি, মাখামাখিতে কাটলো রাত

তাজা খবর:

গত জন্মদিনে মুখ ফসকে বলেছিলেন ‘ককপিট’। তিনি কথা রাখলেন। নিয়ন আলোয় ঝলমলে তিলোত্তমা ঢাকার এক কোণে বিমানবালা আবতারে রাজির হলেন ঢাকাই চিত্রনায়িকা পরীমনি। এসেন তিনি হাসলেন, নাচলেন অতঃপর মুগ্ধ করলেন!
রোববার ছিল লাস্যময়ী অভিনেত্রী পরীমনির জন্মদিন। রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে জন্মদিনের আয়োজন করেছেন তিনি।

এবারের জন্মদিনের আয়োজনের সাজসজ্জায় লাল-সাদা রং বিন্যাস রাখা হয়। পরীমনির পরনে ছিল লাল রঙের শার্ট, মাথায় লাল-সাদার সমন্বয়ে টুপি; এছাড়া নিম্নাংশ আবৃত করেছেন সাদা রঙের একটি কাপড়ে, যেটা অনেকটা লুঙ্গির মতো দেখতে। কাছা দেয়ার ভঙ্গিমায় সেটা পরেছেন তিনি। এমন ব্যতিক্রমী পোশাকে পরীমনি নজর কেড়েছেন পার্টিতে আগত অতিথি ও নেটিজেনদের।

জন্মদিনের উদযাপন মঞ্চ বিমানের ককপিটের আদলে সাজানো হয়, যার রং হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে সাদা-লাল। লাল রঙের ইংরেজি বর্ণ মঞ্চের ওপরের লেখা ‘ফ্লাই উইথ পরীমনি’ অর্থাৎ ‘পরীমনির সঙ্গে ওড়ো’।

বিপদের দিনের বন্ধুদেরই কেবল এবার ডেকেছেন ‘স্বপ্নজাল’ খ্যাত এই নায়িকা। সত্যি যেন উড়েছেন পরীমনি ও জন্মদিনের আমন্ত্রণে আসা অতিথিরা। সবার চোখে-মুখে উচ্ছল হাসি আর আনন্দ। অনুষ্ঠানের শেষেরদিকে অতিথিদের সঙ্গে পরীমনির কেক মাখামাখিও হয়।

জন্মদিন উপলক্ষে পরীমনি তার শুভাকাঙ্ক্ষী, আত্মীয়-স্বজনদের কার্ড দিয়ে আমন্ত্রণ করেন। তার কার্ড হাতে পেয়ে অনেকেই মনে করেন এটি বিমানের টিকিট। আমন্ত্রণপত্রে বোর্ডিং পাস লেখার পাশাপাশি বিমানের ছবিও রয়েছে এতে।

এদিকে জন্মদিনের প্রথম প্রহরে তার নানাসহ কাছের মানুষদের নিয়ে কেক কেটেছেন। দুপুরে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সঙ্গে কেক কেটে কিছুসময় অতিবাহিত করেছেন। রাতে আমন্ত্রিত অতিথিদের নিয়ে নেচে গেয়ে জন্মদিন পালন করেন এই অভিনেত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *