ইইউর সঙ্গে চুক্তি

বিমান চলাচলে ইইউর সঙ্গে চুক্তি হচ্ছে

তাজা খবর:

বাংলাদেশ থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশগুলোতে বিমান চলাচলে দ্বিপক্ষীয় চুক্তি করতে সম্মতি দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ জন্য বাংলাদেশ ও ইইউর মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বিমান চলাচল চুক্তির খসড়ার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশের সঙ্গে আমরা বিমান চলাচলের জন্য চুক্তি করে থাকি। ইইউর বিভিন্ন দেশের সঙ্গে আমাদের বিমান চলাচল চুক্তি আছে। এ জোটের পক্ষ থেকে প্রস্তাব করা হয়েছিল তারা চুক্তি করতে চায়। তাদের প্রস্তাবের বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এখন তাদের সঙ্গে চুক্তি হবে। চুক্তি হলে ইইউর স্ট্যান্ডার্ড বা মান আমাদেরও বজায় রাখতে হবে।

মাহবুব হোসেন আরও বলেন, বাংলাদেশ ও কসোভোর মধ্যে স্বাক্ষরের লক্ষ্যে সাংস্কৃতিক সহযোগিতা বিষয়ক চুক্তির খসড়াও অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সামুদ্রিক পর্যটন প্রসারে নীতিমালা
বঙ্গোপসাগরকে ঘিরে সামুদ্রিক পর্যটন প্রসারে একটি নীতিমালা করেছে সরকার। এ জন্য ‘সামুদ্রিক পর্যটন নীতিমালা ২০২৩’-এর খসড়ারও অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।
মাহবুব হোসেন জানান, প্রথমবারের মতো এই নীতিমালা অনুমোদন দেওয়া হলো। বঙ্গোপসাগরকে ভিত্তি করে ট্যুরিজম ইকোনমি তৈরি করতে সরকারের তরফ থেকে কীভাবে সহযোগিতা করা হবে, কোন কোন এরিয়ায় কাজ করা হবে, তার একটি কার্যক্রম নীতিমালায় বলা আছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, নীতিমালায় পর্যটকদের জন্য সুযোগ-সুবিধা, বেসরকারি খাতের বিনিয়োগকারীদের সহযোগিতা, আন্তর্জাতিক ট্যুর অপারেটরদের সঙ্গে সমন্বয়ের বিষয়ে এতে বলা আছে। সমুদ্র পথে যদি কেউ হাজিদের নিতে চায়, সে ক্ষেত্রেও সরকার কীভাবে সহযোগিতা করতে চায় তা বলা আছে এতে।

পেঁয়াজ নিয়ে নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ

হঠাৎ সারাদেশে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় মাঠ পর্যায়ে নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

মন্ত্রিসভা বৈঠকে পেঁয়াজের দাম নিয়ে কোনো আলোচনা হয়েছে কিনা– জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘পেঁয়াজ নিয়ে ক্যাবিনেটে নয়, আলাদাভাবে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেটি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কাছে।’

তিনি বলেন, আপনারা দেখতে পাচ্ছেন মাঠ পর্যায়ে এখন ক্লোজ মনিটরিং হচ্ছে। ফলে গতকাল যে দাম বৃদ্ধির প্রবণতা ছিল আজকে তা নেই।

এই নির্দেশনা কি মন্ত্রিসভার বৈঠকে দিয়েছেন নাকি বাইরে দিয়েছেন– জানতে চাইলে মাহবুব হোসেন বলেন, ওই সিদ্ধান্ত তো ক্যাবিনেটে আলোচ্য বিষয় ছিল না। এটা হলো সাধারণ প্রশাসনিক ব্যাপার। যখন একটি ক্রাইসিস বা সমস্যা তৈরি হয়, তখন ওই মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়।

অন্যান্য বিষয়
মাহবুব হোসেন জানান, নির্বাচনের আগে মন্ত্রিপরিষদ বৈঠক আর হবে কিনা, সেটা এখনই বলা যাবে না। সরকার যদি মনে করে কোনো গুরুত্বপূর্ণ আইন বা বিষয় রয়েছে আলোচনার জন্য, তখন ক্যাবিনেট বৈঠক হতে পারে।

তিনি জানান, গতকাল মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জে সাড়ে ৩০০ একর জমিতে ‘মাদারগঞ্জ সোলার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড’ প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। কিয়ার চায়না এবং বিআর পাওয়ারজেন লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে এটি নির্মাণ হবে।

এ ছাড়া ‘জাতীয় স্বেচ্ছাসেবা নীতিমালা ২০২৩’-এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, স্বেচ্ছাসেবা বাংলাদেশে খুবই ভালো একটি ক্ষেত্র। ইতোমধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় স্বেচ্ছাসেবায় আমরা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছি। বাংলাদেশের মানুষ বিভিন্নভাবে, বিভিন্ন প্রয়োজনে স্বেচ্ছাসেবা করে। স্বেচ্ছাসেবা প্রতিষ্ঠানগুলো বাংলাদেশে ভালোভাবে কাজ করছে। তাদের কাজকে সহযোগিতা করার জন্য এই নীতিমালা করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *