মাঠে ও বৈঠকে কোণঠাসা সঙ্গী হারা মির্জা ফখরুল!

মাঠে ও বৈঠকে কোণঠাসা সঙ্গী হারা মির্জা ফখরুল!

নিউজ ডেস্ক : মতের অমিল, তর্ক, দলকে নেতৃত্ব দিতে ব্যর্থতার জেরে সৃষ্ট ঝামেলায় মির্জা ফখরুলকে বৈঠক শেষে একাই ফেলে চলে গেলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যরা। এসময় মির্জা ফখরুলকে বেশ ক্লান্ত, অসহায় ও বিধ্বস্ত দেখাচ্ছিল। স্থায়ী কমিটির সদস্যরা বেকে বসায় মির্জা ফখরুলকে একা লড়াই চালিয়ে যেতে হচ্ছে বলে জানা গেছে।

শনিবার (২২ জুন) বিভিন্ন ইস্যুতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক রাত সোয়া ৮ টায় শেষ হলে এমন দৃশ্যের অবতারণা হয়। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে আসেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এসময় সাংবাদিকরা তার পাশে কোন বিএনপি নেতা না থাকার কারণ জানতে চাইলে তিনি সকলের ব্যস্ততার অজুহাত দেখিয়ে প্রশ্নটি এড়িয়ে যান।

তবে বৈঠক সূত্র বলছে, বেগম জিয়ার মুক্তিতে আন্দোলন গড়ে তুলতে ব্যর্থতা, ছাত্রদলে নাস্তানাবুদ হওয়া, ঐক্যফ্রন্টে নিজেদের সত্তা বিকিয়ে দেয়া, জামায়াতকে কৌশলে ত্যাগ করে সাংগঠনিক শক্তি হারানো, স্থায়ী কমিটিতে যোগ্য নেতাদের স্থান করে দিতে না পারার কারণে মির্জা ফখরুলকে একতরফা ভাবে দায়ী করেন বৈঠকে উপস্থিত স্থায়ী কমিটির সদস্যরা। এছাড়া সাম্প্রতিক রাজনৈতিক ব্যর্থতা বিশেষ করে ছাত্রদলের সৃষ্ট সংকট নিরসনে কোন ভূমিকা না রাখায় নেতাদের তোপের মুখে পড়েন মির্জা ফখরুল। এছাড়া লন্ডনে সঠিক বার্তা দিতে না পারার কারণেও বৈঠকে নানা প্রশ্নবাণে বিদ্ধ হন তিনি।

সূত্রটি এও জানায়, বৈঠকের এক পর্যায়ে মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বিএনপির বৃহত্তর স্বার্থে আগামী কাউন্সিলে মহাসচিব পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করারও পরামর্শ দিলে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ফখরুল। পরবর্তীতে মির্জা ফখরুল বিষয়টিতে স্কাইপেতে যুক্ত তারেক রহমানের দৃষ্টি আকর্ষণ করেও ব্যর্থ হন। আয়োজন করে বৈঠক করেও কোন সিদ্ধান্ত নিতে না পারায় বৈঠকে শেষে নেতারা মির্জা ফখরুলকে একা ফেলে বৈঠক স্থল ত্যাগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *