মিশিগানে দুর্গাপূজার আনন্দে মেতেছে বাঙালিরা

মিশিগানে দুর্গাপূজার আনন্দে মেতেছে বাঙালিরা

তাজা খবর:

ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানের ওয়ারেন সিটিতে নবপ্রতিষ্ঠিত শিব মন্দির বা টেম্পল অব জয়ে শুরু হয়েছে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা।

সাতদিনব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রথম দিনে গতকাল (শনিবার) বিশেষ পূজা, অঞ্জলি প্রদান ও প্রসাদ বিতরণ করা হয়। পূজার পাশাপাশি বিকেলে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়। এতে ছিল নাচ, গান, ধামাইল ও আরতি।

বিকেল ৫টায় মঙ্গল প্রদীপ জ্বালিয়ে ও ফিতা কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মন্দিরের দাতা, বিশিষ্ট চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ মৃধা ও তার সহধর্মিনী চিনু মৃধা। এ সময় চিনু মৃধা সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, ১০ দিনের শিশু এই মন্দিরটিতে প্রথমবারের মতো পূজার আয়োজন করতে পেরে আমরা খুবই খুশি। পূজার আয়োজনে সংশ্লিষ্ট সকলের কর্মতৎপরতা ছিল খুবই আন্তরিক এবং অত্যন্ত প্রশংসনীয়। এজন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানান।

এরপর শুরু হয় সঙ্গীতানুষ্ঠান। এতে গান পরিবেশন করেন স্থানীয় শিল্পী পূর্বা চৌধুরী, সুস্মিতা ধর, নুর চিশতি, অজিত দাস, কাবেরি দে, শ্রুতি হাওলাদার, অঙ্কুর দে, অতসি চৌধুরী, অদিতি দেব, পৃথা দেব। অতিথি শিল্পী হিসেবে নিউইয়র্ক থেকে আগত জনপ্রিয় লোকসঙ্গীত শিল্পী দুলাল ভৌমিক সঙ্গীত পরিবেশন করেন। তাকে তবলায় সহায়তা করেন উত্তম বড়ুয়া।

অতিথি শিল্পী সঙ্গীতা করের সাথে দুটি নৃত্য পরিবেশন করেন মন্দিরের দাতা, সমাজসেবী চিনু মৃধা ও তার মেয়ে অমিতা মৃধা। পরে নৃত্য শিক্ষক ও প্রশিক্ষক সঙ্গীতা কর একটি গান পরিবেশন করেন। এছাড়াও নৃত্যানুষ্ঠানে শিল্পীদের মধ্যে রিয়া রায়, কৃষ্টি পাল, স্বাগত পাল, অদ্রিজা চক্রবর্তী অংশ নেন।

এদিকে পূজা উপলক্ষে শিব মন্দিরটির ভেতরে ও বাইরে বিরাজ করছে সাজসাজ রব। উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে পূজা অর্চনা। করা হয়েছে আলোকসজ্জা। ঢাক-ঢোল, কাঁসর ঘণ্টা, শাঁখের ধ্বনিতে মুখরিত এই পূজামণ্ডপ। শুধু সনাতন ধর্মাবলম্বীরাই নয়, এ আনন্দে একাত্ম হয়েছেন সব ধর্মের মানুষ। উৎসব হয়ে উঠেছে সার্বজনীন। এ যেন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক অসামান্য মেলবন্ধন।

উৎসবের দ্বিতীয় দিনে আজ রোববার বিশেষ পূজা ও অঞ্জলি প্রদান করা হবে। বিকেলে থাকছে কবিতা পাঠের আসর, ফ্যাশন শো, গান, নৃত্যানুষ্ঠান, ধামাইল প্রভৃতি। এছাড়া দুর্গোৎসব চলাকালে প্রতিদিনই অঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ ও ভোগ-আরতি হবে। থাকবে ধুনুচি নৃত্যসহ নানা আয়োজন।

হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় এ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে মিশিগান রাজ্যে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। প্রতিবারের মতো এবারও মিশিগান রাজ্যের বিভিন্ন সিটিতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে ডেট্রয়েট, ওয়ারেন, সাগিনা, লিভোনিয়া, ক্যান্টন, ট্রয়, পন্টিয়াক, স্যালাইন সিটি অন্যতম। পূজাকে ঘিরে এখানকার হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মাঝে এরইমধ্যে শুরু হয়েছে উৎসবের আমেজ। মন্দিরে, মণ্ডপে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। পাঁচ দিনের পূজার অনুষ্ঠানসূচিতে রয়েছে পুষ্পাঞ্জলি, আরতী, চণ্ডীপাঠ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রভৃতি।

সোমবার সকালে ষষ্ঠী তিথিতে মিশিগানের বিভিন্ন মন্দিরে বোধন বা দেবীর ঘুম ভাঙানোর বন্দনা পূজা হবে। ষষ্ঠী তিথিতে বিহিতপূজার পর দেবীর আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে মূল দূর্গোৎসবের সূচনা হবে। মঙ্গলবার মহাসপ্তমী। এদিন সকালে ত্রিনয়নী দেবীদুর্গার চক্ষুদান করা হবে। এরপর দেবীর নবপত্রিকা প্রবেশ, স্থাপন, সপ্তম্যাদি কল্পারম্ভ ও সপ্তমীবিহিত পূজা হবে। বুধবার মহাঅষ্টমী পূজা। এরপর বৃহষ্পতিবার মহানবমী। শুক্রবার বিজয়া দশমীতে প্রতিমা নিরঞ্জনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে এবারের দুর্গোৎসব। একটি বছরের জন্য দুর্গতিনাশিনী দেবী ফিরে যাবেন কৈলাসে দেবালয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *