‘মুজিব কিল্লার’ নির্মাণকাজ তদারকিতে প্রধানমন্ত্রী

‘মুজিব কিল্লার’ নির্মাণকাজ তদারকিতে প্রধানমন্ত্রী

তাজা খবর:

বন্যা ও বিভিন্ন দুর্যোগকবলিত এলাকার মানুষ ও প্রাণীদের নিরাপদে রাখার জন্য ‘মুজিব কিল্লা’ নামে আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণকাজের গতি নেই। এ, বি ও সি ক্যাটাগরির মোট ৫৫০টি কিল্লা নির্মাণের লক্ষ্যে প্রকল্প নেয়া হয়েছে। প্রকল্পের ডিজাইন, প্ল্যান নিয়ে বুয়েট দীর্ঘসময় নষ্ট করে ফেলে। এজন্য এখন ভুক্তভোগীদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার তদারকিতেই নির্মাণ করা হচ্ছে মুজিব কিল্লা।

বুধবার (১১ আগস্ট) দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৫তম বৈঠকের কার্যপত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

কার্যপত্রে উল্লেখ করা হয়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. আতিকুল হক পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে মুজিব কিল্লা বিষয়ে বাস্তবায়ন অগ্রগতি উপস্থাপন করেন।

তিনি বলেন, ‘এ, বি ও সি ক্যাটাগরির মোট ৫৫০টি কিল্লা নির্মাণের লক্ষ্যে প্রকল্প নেয়া হয়েছে। প্রকল্পের ডিজাইন, প্ল্যান ইত্যাদি নিয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) দীর্ঘসময় নষ্ট করে ফেলে। তাছাড়া যেখানে প্রকল্প হওয়ার কথা সেখানে না করে অন্য জায়গার প্ল্যান দেয় বুয়েট। বুয়েট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কোনো সদুত্তর পাওয়া যাচ্ছে না।’

তিনি বলেন, ‘উপকূলীয় অঞ্চলের ভুক্তভোগীদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী তাদের প্রতিক্রিয়া জানার চেষ্টা করছেন। সে অনুযায়ীই পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।’ তবে গত ১০ মার্চ দুর্যোগ মোকাবিলা দিবস উপলক্ষে ৫টি মুজিব কিল্লা উদ্বোধন করার মাধ্যমে প্রক্রিয়াটি কার্যকর করার চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এমপি বলেন, ‘মুজিব কিল্লা নির্মাণ কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী তদারকি করছেন। আশা করি দ্রুত কাজ শেষ হবে।’

জানা গেছে, আজকের বৈঠকে গ্রামীণ মাটির রাস্তাসমূহ টেকসই করণের লক্ষ্যে হেরিংবোন বন্ড (২য় পর্যায়) প্রকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়। এছাড়া ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে উপকূলীয় অঞ্চলে ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে আলোচনা হয়।

বৈঠকে জেনারেল রিলিফ বা জিআর চাল বরাদ্দে স্থানীয় সংসদ সদস্যদের সঙ্গে পরামর্শ করে চূড়ান্ত করার সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি এ বি তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, জুয়েল আরেং, মজিবুর রহমান চৌধুরী, মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী ও কাজী কানিজ সুলতানা অংশ নেন।

বৈঠকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব ও মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *