মোংলা বন্দরে বঙ্গবন্ধু রেলসেতু ও রূপপুরের মেশিনারিজবাহী ৩ জাহাজ

তাজা খবর:

মোংলা বন্দরে দেশে চলমান মেগা প্রকল্প বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে সেতু ও রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র মেশিনারিজ ও মালামাল নিয়ে রবিবার সকালে ও দুপুরে ৩ টি জাহাজ পৌঁছেছে। বন্দর কতৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সকালে বঙ্গবন্ধু রেলওয়ে সেতুর তিন হাজার ৩৫২ দশমিক ৩৮৯ মেট্রিকটন স্টিল পাইপ নিয়ে বন্দরের সাত নম্বর জেটিতে নোঙ্গর করে পানামা পতাকাবাহী ‘এমভি কুই ইয়া শান’ জাহাজ।

একই সময়ে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের চার হাজার ৭১৬ দশমিক ২৬ মেট্রিক টন মেশিনারিজ নিয়ে বন্দরের আট নম্বর জেটিতে নোঙ্গর করে পানামা পতাকাবাহী জাহাজ ‘লিবার্টি হারভেস্ট’।

এদিন দুপুরে রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের তিন হাজার ৬৩৩ মেট্রিক টন মেশিনারি পণ্য নিয়ে রুশ পতাকাবাহী ‘এমভি কামিল্লা’ নামের আরও একটি জাহাজ বন্দরে নোঙ্গর করে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার বিভাগ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এমভি কুই ইয়া শান নামের বিদেশী জাহাজের শিপিং এজেন্ট হক অ্যান্ড সন্সের খুলনাস্থ কর্মকর্তা শওকত আলী বলেন, ২৩৮ প্যাকেজে তিন হাজার ৩৫২ মেট্রিক টন পণ্য নিয়ে জাহাজটি বন্দর জেটিতে নোঙ্গর করে। জাহাজে আসা পণ্যগুলো দ্রুত খালাসের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

অপরদিকে, রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মেশিনারি পণ্য নিয়ে আসা বিদেশি জাহাজ লিবার্টি হারভেস্ট-এর শিপিং এজেন্ট ইন্টারপের্টের পরিচালক শাহীন ইকবাল বলেন, রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মালামাল আট নম্বর জেটিতে নোঙ্গর করেছে। চারদিনের মধ্যে এসব পণ্য খালাস সম্পন্ন হবে। খালাস শেষে সড়ক ও নৌ-পথে পাবনার ঈশ্বরদীতে নির্মাণাধীন রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হবে।

এদিকে, রুশ পতাকাবাহী এমভি কামিল্লার শিপিং এজেন্ট কনভেয়ার শিপিং লাইন্সের ম্যানেজার অপারেশন সাধন কুমার চক্রবর্তী বলেন, এ জাহাজে তিন হাজার ৬৩৩ মেট্রিক টন পণ্য আনা হয়েছে। খালাস শেষে এসব পণ্য রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পৌঁছাবে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা বলেন, দেশের নির্মাণাধীন প্রায় সব মেগা প্রকল্পের মালামাল মোংলা বন্দর দিয়ে খালাস হচ্ছে। দ্রুত সময়ে আধুনিক পদ্ধতিতে দক্ষ জনবল দিয়ে এসব পণ্য খালাস হওয়ায় ব্যবসায়ীরা এ বন্দর ব্যবহারে আরও বেশি আগ্রহী হচ্ছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *