রজনীগন্ধা ভবনে ১৫ দিন থাকতে হবে পরীমনিকে

রজনীগন্ধা ভবনে ১৫ দিন থাকতে হবে পরীমনিকে

তাজা খবর:

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় রিমান্ড শেষে চিত্রনায়িকা পরীমনিকে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। কারাগারের নিয়মানুযায়ী তাকে ১৫ দিন কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

কাশিমপুর মহিলা কারাগারের সিনিয়র সুপার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) আব্দুল জলিল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, পরীমনিকে কারাগারের রজনীগন্ধা ভবনে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। মহামারীকালের স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী সেখানে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিন করতে হবে। এর মধ্যে তাদের করোনার লক্ষণ দেখা না দিলে পরে তাদের সাধারণ বন্দিদের ভবনে পাঠানো হবে।

আব্দুল জলিল বলেন, ‘সাধারণ নিয়ম অনুযায়ী নতুন বন্দিদের ১৫ দিন কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ৭ দিন পরও সাধারণ ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়। পরীমনিকেও ১৫ দিন কোয়ারেন্টিনে রাখা হবে। কোয়ারেন্টিন শেষে তিনি ডিভিশন পাবেন। নতুন নির্দেশনা পেলে আমরা পরবর্তী ব্যবস্থা নেবো।

শুক্রবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে তাকে প্রিজন ভ্যানে করে কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগারে নেয়ার জন্য রওনা হয় পুলিশ। তবে প্রিজন ভ্যানে উঠার আগে পরীমনি গাড়িটিকে ‘নাইস গাড়ি’ বলে সম্বোধন করেন।

কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল ইসলাম জানান, সাড়ে ৫টার কিছু পর চিত্রনায়িকা পরীমনিকে কাশিমপুর কারাগারে নিয়ে আসা হয়। জেলকোড অনুযায়ী কারাগারে থাকতে হবে মাদকসহ গ্রেফতারকৃত চিত্রনায়িকা পরীমনিকে। তিনি যদি কোনো ডিভিশন না পান তাহলে সাধারণ হাজতির মতো কারাগারে থাকতে হবে।

তিনি বলেন, মূলত নারী হাজতিদের কাশিমপুর হাই-সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়। সেখানেই পরীমনিকে রাখা হবে। তবে আদালতের বিশেষ কোনো আদেশ না থাকলে জেলকোড মেনেই তাকে এখানে থাকতে হবে।

গত ৪ আগস্ট রাতে ঢাকার বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরদিন তার বিরুদ্ধে বনানী থানায় মাদক আইনে মামলা করা হয়। সেই মামলায় দুই দফায় ছয় দিন রিমান্ড শেষে শুক্রবার তাকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে পাঠানো হলে বিচারক ধীমান চন্দ্র মণ্ডল জামিন নামঞ্জুর করে পরীমনিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *