শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে পারবে

রাজনৈতিক দল শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে পারবে, বাধা নেই

তাজা খবর:

নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আলমগীর বলেছেন, কেউ যদি শান্তিপূর্ণ সভা-সমাবেশ করে এ বিষয়ে আমাদের কোনো বক্তব্য নেই। সরকার যেখানে অনুমতি দেবে সেখানে সভা-সমাবেশ করবে। আমাদের বক্তব্য হলো নির্বাচনে বাধা সংক্রান্ত সভা-সমাবেশ করা যাবে না। যে সব কর্মসূচি নির্বাচনের পথে হুমকি বা বাধা এসব কর্মসূচি করা যাবে না। তবে যে কোনো দেশে যে কোনো পক্ষের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ বা বক্তব্য দেওয়ার অধিকার তাদের আছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়ে তারা করতে পারবে।

বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) আগারগাঁও নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সমাবেশ প্রসঙ্গে ইসি আলমগীর বলেন, আমাদের আইনে আছে নির্বাচনবিরোধী কোনো কাজ করা যাবে না। আইনে আছে কেউ যদি ভোটে বাধা দেয়, হুমকি দেয়, ভয় দেখায় তাহলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে। আমি আবারও বলছি একই কথা কেউ যদি শান্তি সমাবেশ করে তবে রাষ্ট্রের প্রচলিত নিয়মে করতে পারবে। শান্তিপূর্ণ সমাবেশ কর্মসূচি রাজনৈতিক দল অবশ্যই করতে পারবে, বাধা নেই।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনী একটা আচরণবিধি আছে বা আইন আছে। সেটা হলো নির্বাচনী কাজে কেউ যদি বাধা দেয় তাহলে আমাদের আইন অনুযায়ী এটা অপরাধ। সেই পরিপ্রেক্ষিতেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছি, যাতে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ থাকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ থাকে। কেউ যদি ভোটবিরোধী কোনো শোডাউন বা কর্মসূচি দিয়ে থাকে তবে এটা করা যাবে না।

বিএনপির মতো রাজনৈতিক দলের অধিকার ক্ষুণ্ন হলো কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি বলেন, শুধু বিএনপি নয়, যে কোনো রাজনৈতিক দল যদি বলে তারা ভোটে অংশ নেবে না অথবা ভোটারদের বলতে পারে আপনারা ভোট দিতে আসবেন না। সে ব্যাপারে আমাদের কোনো কথা নেই। তবে যদি কেউ কোনো সন্ত্রাসীমূলক কাজ করে, জ্বালাও পোড়াও করে, রেললাইন কেটে দেয় এ ধরনের কাজ করে তবে এটা করতে দেওয়া যাবে না।

সমাবেশ প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশনার বলেন, সমাবেশ করার অনুমতি দেবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, এটা আমাদের বিষয় নয়। আমাদের বিষয় হলো নির্বাচনে বাধা সৃষ্টি করে এরকম কোনো কাজ করা যাবে না। আপনি যদি বলেন ভোট দিতে যাবেন না আপনার খবর আছে, এরকম কাজ করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *