রাত পোহালেই আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল মেগা ফাইনাল

রাত পোহালেই আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল মেগা ফাইনাল

তাজা খবর:

আন্তর্জাতিক ফুটবলে সবচেয়ে আকর্ষণীয় ম্যাচের কথা উঠলে সবার আগে আসবে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল দ্বৈরথের নাম। আর সেটা যদি হয় কোপা আমেরিকার মতো ফাইনালের মঞ্চে, তবে তো কথাই নেই। দীর্ঘ ১৪ বছর পর আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল মেগা ফাইনালের সাক্ষী হতে যাচ্ছেন ফুটভক্তরা। রাত পোহালেই অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি।
করোনাভাইরাসের কারণে কোপা আমেরিকায় দর্শকরা মাঠে বসে খেলা দেখতে পারছেন না। যদিও ফাইনালে মারাকানা স্টেডিয়ামের ১০ শতাংশ সিট বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। তবে ম্যাচটি উপভোগের জন্য বিশ্বজুড়ে সবাইকে টিভি পর্দার দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে।

ব্রাজিল বনাম আর্জেন্টিনার মেগা ফাইনাল ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে সনি সিক্স, টেন ২ ও টেন ৩। রিও ডি জেনেরিওর মারকানা স্টেডিয়ামে হাইভোল্টেজ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৬টায়। অনলাইনে ওটিটি প্লাটফর্ম বায়োস্কোপের সনি সিক্স চ্যানেলে দেখা যাবে এই ম্যাচ।

এখন পর্যন্ত ১১১ ম্যাচে একে অপরের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। মুখোমুখি লড়াইয়ে আলবেসিলেস্তেদের থেকে এগিয়ে সেলেকাওরা। এখন পর্যন্ত ৪৬ ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ব্রাজিলিয়ানরা। আর্জেন্টাইনদের জয় ৪০টিতে। বাকি ২৫ ম্যাচ ড্র হয়েছে।

কোপার ফাইনালে নিজেদের একাদশ নিয়ে সংশয় রেখেছেন আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি। তিনি জানাননি কোন ১১ জনকে নিয়ে মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা। তবে ব্রাজিলের একাদশ চূড়ান্ত বলা যায়।

গোলবারের নিচে এমিলিয়ানো মার্টিনেজ খেলবেন নিশ্চিতভাবেই। রক্ষণভাবে নিকোলাস ওটামেন্ডির উপস্থিতিও নিশ্চিত। দলের অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার ক্রিস্টিয়ানো রোমেরোকে পেতে শেষ সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করবে আর্জেন্টিনা। হাঁটুর ইনজুরির কারণে শেষের ম্যাচগুলো খেলতে পারেননি তিনি।

রোমেরো না পারলে তার জায়গা নেবেন জার্মান পেজ্জেল্লা। এছাড়া রক্ষণের অন্য দুইটি পজিশনের জন্য নাহুয়েল মোলিনা ও গনজালো মন্টিয়েল এবং নিকোলাস তালিয়াফিকো ও মার্কস আকুনার মধ্যে হবে লড়াই। এ চারজনের মধ্যে দুজনকে দেখা যাবে চূড়ান্ত একাদশে।

মাঝমাঠে শুধুমাত্র জিওভানি লো সেলসো ও লেয়ান্দ্র পারেদেসকে নিয়ে সংশয়। এ দুজনের যেকোনো একজনকে নামানো হবে মাঠে। এছাড়া অন্য দুইটি পজিশনে গুইদো রদ্রিগেজ ও রদ্রিগো ডি পলের থাকা নিশ্চিতই বলা চলে।

আক্রমণভাগে লিওনেল মেসির সঙ্গে লাউতারো মার্টিনেজের থাকাও নিশ্চিত। তৃতীয় ফরোয়ার্ড হিসেবে অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া নাকি নিকোলাস গনজালেজ- সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে ম্যাচের আগে।

অন্যদিকে ব্রাজিলের একাদশ প্রায় চূড়ান্ত। সেমিফাইনালে গোলবারের নিচে থাকা এডারসনকেই হয়তো ফাইনালে দেখা যাবে গ্লাভস হাতে। অধিনায়কত্ব করবেন থিয়াগো সিলভা। নিষেধাজ্ঞার কারণে এ ম্যাচে নেই ফরোয়ার্ড গ্যাব্রিয়েল হেসুস আর ইনজুরির কারণে খেলতে পারবেন না ফেলিপ্পে।

আর্জেন্টিনার সম্ভাব্য একাদশ:

এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, নাহুয়েল মোলিনা/গনজালো মন্টিয়েল, জার্মান পেজ্জেল্লা/ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো, নিকোলাস ওটামেন্ডি, মার্কোস আকুনা/নিকোলাস তালিয়াফিকো, রদ্রিগো ডি পল, গুইদো রদ্রিগেজ, জিওভান্নি লো সেলসো/লেয়ান্দ্র পারেদেস, লিওনেল মেসি, লাউতারো মার্টিনেজ, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া/নিকোলাস গনজালেজ।

ব্রাজিলের সম্ভাব্য একাদশ:

এডারসন মোরায়েস, দানিলো, রেনাল লোদি, মার্কুইনহোস, থিয়াগো সিলভা, ক্যাসেমিরো, ফ্রেড, লুকাস পাকুয়েতা, নেইমার, রিচার্লিসন ও এভারটন রিভেইরো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *