রেলওয়ে নেটওয়ার্ক সারাদেশে স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে: রেলমন্ত্রী

রেলওয়ে নেটওয়ার্ক সারাদেশে স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে: রেলমন্ত্রী

কমলাপুরের লোকোশেড কারখানায় বাংলাদেশ রেলওয়েতে প্রথমবারের মত সংযোজিত হয়েছে আধুনিক প্রযুক্তির “লোকোমোটিভ সিমুলেটর”।

২৪অক্টোবর এ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে রেলমন্ত্রী বলেন, রেলওয়েতে প্রথমবারের মতো আধুনিক প্রযুক্তির “লোকোমোটিভ সিমুলেটর”যুক্ত হলো। ট্রেন চালকদের (লোকোমাস্টার) প্রশিক্ষণে ব্যবহার হবে এ যন্ত্র । সরাসরি ট্রেন ব্যবহার না করে লোকোমোটিভ সিমুলেটরে ট্রেন চালানোর অভিজ্ঞতা পাওয়া যাবে।

রেল আজ এগিয়ে যাচ্ছে। রেলওয়ের উন্নয়নে নতুন নতুন প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। উন্নয়ন প্রকল্পের পাশাপাশি বিদ্যমান কাঠামোকে আরও উন্নত করার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ রেলওয়ের ট্রেন চালকদের উন্নততর প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য এই সিমুলেটর বিদেশ থেকে আনা হয়েছে। এতে করে যাত্রীদের নিরাপত্তা আরও সুরক্ষিত হবে বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

রেলপথ মন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান সরকার রেলকে গুরুত্ব দিয়ে ২০১১ সালে আলাদা মন্ত্রণালয় করেছে। রেলওয়ে নেটওয়ার্ক সারাদেশে স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। নতুন নতুন রেললাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে চট্রগ্রাম-কক্সবাজার, পদ্মা রেল লিংকে ঢাকা থেকে যশোর, নারায়নগঞ্জ থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত লাইনে বিদ্যুৎ দ্বারা ট্রেন চালনা পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়া্ও বেশ কিছু মেগা প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলছে ।

সিমুলেটরটি দিয়ে বাস্তবে ট্রেন না চালিয়েও ট্রেন চালানোর অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবেন চালকরা । বাস্তবে একটি ট্রেন ইঞ্জিনে যা যা থাকে, সিমুলেটরেও সেসব থাকছে পাশাপাশি রুটগুলোর ভিডিও গ্রাফিকস থাকছে। সিমুলেটরে সবকিছু কৃত্রিমভাবে গড়ে তোলা হয়েছে।

সিমুলেটরের সাহায্যে একজন প্রশিক্ষক ট্রেনিং প্ল্যান তৈরি করে সে মোতাবেক চালাকদের (লোকোমোস্টার) প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের ভুলত্রুটিগুলো তাৎক্ষনিকভাবে নিরুপন করতে পারবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *