র‌্যাবের অভিযানে দুই জঙ্গি আটক

র‌্যাবের অভিযানে দুই জঙ্গি আটক

তাজা খবর:

রাজধানীর গাবতলী ও টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-৪। আটকরা হলো- মো. তাভী খাঁন (২১) ও মো. সোহাগ হাওলাদার ওরফে সোহাগ (২৫)।
বুধবার এ তথ্য জানান র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম। তিনি জানান, মঙ্গলবার গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকার গাবতলী বাসস্ট্যান্ড ও টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থেকে আনসার আল ইসলামের দুই সক্রিয় সদস্যকে আটক করা হয়।

তিনি আরো জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক দু’জন নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। তাদের কাছ থেকে জঙ্গি সংগঠনের বিভিন্ন ধরনের উগ্রবাদী বই, ডিজিটাল কনটেন্ট ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

জঙ্গি সদস্য তাভী খাঁন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তার বাড়ি টাঙ্গাইল জেলায়। সে ডিপ্লোমা (সিভিল ইঞ্জিনিয়ার) কোর্স সম্পন্ন করেছে। এক পর্যায়ে আনসার আল ইসলামের শীর্ষ স্থানীয় নেতা এর আগেই গ্রেফতার ইলিয়াছ হাওলাদার ওরফে খাত্তাবের সঙ্গে পরিচত হয়। এরপর জঙ্গি সংগঠনে সম্পৃক্ত হয়ে অনলাইনে বিভিন্ন উগ্রবাদী আইডি থেকে জঙ্গি সংক্রান্ত পোস্ট ডাউনলোড করতো। সে জঙ্গি সংগঠনে বিভিন্নভাবে আর্থিক সহায়তা করে আসছে।

আটক জঙ্গি সদস্য সোহাগ হাওলাদার ওরফে সোহাগ প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, সে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানা এলাকায় একটি ওয়ার্কশপে কাজ করে। সে দুই বছর ধরে এই সংগঠনের সঙ্গে জড়িত।

আটক আসামীরা জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানায়, তারা গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার বিপক্ষে। তারা এই গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থাকে অবৈধ হিসেবে আখ্যায়িত করে এই সরকার উৎখাতের লক্ষ্যে উগ্রবাদী কার্যক্রম পরিচালনার প্রয়াস চালিয়ে আসছে। তাদের উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিকারীদের উপর তারা আকস্মিক আক্রমন করে থাকে।

জঙ্গি তৎপরতা, প্রশিক্ষণ ও করনীয় সম্পর্কে তারা নিজেদের মধ্যে অনলাইনে যোগাযোগ করে। জঙ্গি সংগঠনের শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের নির্দেশ প্রতিপালন সাংগঠনিক তৎপরতা বৃদ্ধি, নতুন সদস্য ও চাঁদা সংগ্রহসহ উগ্রবাদী কার্যক্রম সম্প্রসারণের লক্ষ্যে তারা গোপন মিটিং করার জন্য গত ১৬ নভেম্বর উত্তরার জমজম টাওয়ারের পশ্চিম পাশে ভোজন বিলাস হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টে মিলিত হওয়ার চেষ্টা করছিল। র‌্যাব-৪ এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই তথ্য জানতে পেরে ওই স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আনসার আল ইসলামের পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতার করে নাশকতার পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দেয়। ওই দিন সেখানে মো. তাভী খান ও মো. সোহাগ হাওলাদার উপস্থিত ছিল। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা সুকৌশলে পালিয়ে যায়।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *