লেখিকাকে ধর্ষণ করা জাপা নেতা লোটন প্রথমে বিএনপি করতেন!

লেখিকাকে ধর্ষণ করা জাপা নেতা লোটন প্রথমে বিএনপি করতেন!

নিউজ ডেস্ক: জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর শিকদার লোটনের বিরুদ্ধে এক লেখিকাকে ব্লাকমেল করে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

বিয়ের কথা বলে একাধিকবার গাড়িতে এবং রাজধানীর বিউটি বোর্ডিংয়ে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে আলমগীর শিকদার লোটনের (৫৩) বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সেই লেখিকা।

এদিকে বিস্তারিত অনুসন্ধানে জানা গেছে, লোটন তার রাজনৈতিক জীবনের শুরুতে নিজ স্থায়ী ঠিকানা নারায়ণগঞ্জে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকারের সঙ্গে রাজনীতি করতেন। পরে সুযোগ বুঝে তিনি জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন।
মামলার অভিযোগে বাদী বলেন, ‘শিকদার অ্যান্ড পাবলিকেশন’ ও ‘আকাশ পাবলিকেশন’এর মালিক আসামি আলমগীর শিকদার লোটন। যার কারণে লোটনের সঙ্গে পরিচয় হয় বাদীর। বিভিন্ন কাজের জন্য বাদীকে লোটনের সঙ্গে দেখা করতে হতো। তখন আসামি বাদীকে পেলেই বিভিন্ন ধরণের নোংরা ও অসামাজিক কথাবার্তা বলতেন। আসামি বাবার বয়সী ভেবে বাদী বিষয়টি এড়িয়ে যেতেন। এছাড়া আসামি বিভিন্ন সময় ফোনে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ম্যাসেঞ্জারে বাদীর কাছে নোংরা ছবি পাঠাতো এবং ভিডিও কলে নোংরা প্রস্তাব দিতো। বাদী কঠোরভাবে প্রতিবাদ করতে পারতেন না, কারণ তাকে কাজের জন্য আসামির কাছে যেতে হতো।

এছাড়া চলতি বছরের ১ জানুয়ারি আসামি লোটনের জন্মদিন হওয়ায় তার অনুরোধে লেখিকা রাজধানীর কোতোয়ালি থানাধীন বিউটি বোর্ডিংয়ে আসেন। সেখানে জন্মদিনের কেক কাটার পর আসামি বাদীকে বাসায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে গাড়িতে তোলেন। পথে ড্রাইভার ও তার সহযোগীদের গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে ঘুরতে ঘুরতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার একটি নিরিবিলি স্থানে গাড়ি থামিয়ে রাত ৯টার দিকে গাড়িতেই বাদীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন এবং সে সময় মোবাইল ফোনে কিছু নোংরা ছবি ও ভিডিও ধারণ করেন লোটন।

এরপর বাসায় পৌঁছে দেয়ার সময় হুমকি দেন, বিষয়টি কাউকে জানালে ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেবেন। আসামির কাছে নোংরা ছবি ও ভিডিও থাকায় সে বাদীকে বিভিন্ন সময়ে ব্ল্যাকমেল করেন। এরপর বিভিন্ন সময় আসামির পাবলিকেশন ও বিউটি বোর্ডিংয়ে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন।

সর্বশেষ গত ৩০ জুন আসামি বাদীকে বিয়ে করবে বলে ডেকে এনে বিউটি বোর্ডিংয়ের দোতলার একটি কক্ষে পুনরায় ধর্ষণ করেন।

উল্লেখ্য, অভিযুক্ত জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর শিকদার লোটন বিএনপি করা অবস্থায় তারেক রহমানের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিলো বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *