শতভাগ আসনে যাত্রী নিয়ে স্বাভাবিক ট্রেন চলাচল

শতভাগ আসনে যাত্রী নিয়ে স্বাভাবিক ট্রেন চলাচল

তাজা খবর:

প্রায় ছয় মাস পর স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরেছে ট্রেন চলাচল। বুধবার থেকে আগের মতো প্রতি আসনে যাত্রী নেওয়া হচ্ছে। ফলে দীর্ঘদিন পর শতভাগ আসনে যাত্রী নিয়ে গন্তব্যে ছুটছে ট্রেন। তবে বুধবার থেকে অর্ধেক আসনে যাত্রী নেওয়ার নিয়ম বদল করে শতভাগ আসনে ট্রেনের টিকিট বিক্রি হলেও বন্ধ রয়েছে স্ট্যান্ডিং টিকিট। ফলে আপাতত যাত্রীদের দাঁড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ বন্ধ রয়েছে। কমলাপুর ও বিমানবন্দর স্টেশনে টিকিট ছাড়া পস্ন্যাটফর্মে প্রবেশের সুযোগও বন্ধ করা হয়েছে। এতে ট্রেনে অতিরিক্ত যাত্রী দাঁড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ কমেছে অসাধু রেল কর্মকর্তাদের। বুধবার সকালে কমলাপুর রেলস্টেশনে গিয়ে দেখা যায়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাউন্টারে ট্রেনের ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি করা হয়। টিকিট কেনার সময় দূরত্ব বজায় রাখতে আনসার বাহিনী কাজ করে। পস্ন্যাটফর্মের প্রবেশপথে ছিল হ্যান্ড স্যানিটাইজার। বাকি ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইন থেকে কিনেন যাত্রীরা। শতভাগ টিকিট দেওয়ার ফলে অনলাইন ও কাউন্টার থেকে যাত্রার ১০ দিন আগে অগ্রিম টিকিট কিনতে পেরেছেন যাত্রীরা। প্রতিটি ট্রেনে সব আসনে শতভাগ যাত্রী পরিবহণ করতে দেখা গেছে। কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে আগের মতো যাত্রী নিয়ে ছুটেছে ট্রেন। দীর্ঘদিন পর পাশাপাশি সিটে বসে যাত্রা করেন যাত্রীরা। তবে আন্তঃনগর সব ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকিট বিক্রি বন্ধ রয়েছে। কমলাপুর রেলস্টেশনের স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারোয়ার বলেন, ‘অনেক দিন পর শতভাগ আসনে যাত্রী নিয়ে চলছে ট্রেন। যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। মোবাইল অ্যাপ-অনলাইনে ৫০ শতাংশ টিকিট ও স্টেশন কাউন্টার থেকে ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। ভোর ৬টা থেকে অনলাইনে ও সকাল ৮টা থেকে কাউন্টারে টিকিট কাটতে পারবেন যাত্রীরা।’ দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় গত ২৫ মার্চ থেকে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। দুই মাস পর গত ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে আন্তঃনগর ট্রেন চালু করা হয়। তারপর কয়েকটি ধাপে মোট ১০৯ জোড়া অর্থাৎ ২১৮টি যাত্রীবাহী ট্রেন ফের চালু করা হয়েছে। সব মিলে সারাদেশে ৩৬২টি যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *