শিশুরাই গড়ে তুলবে আগামীর আলোকিত মানবিক বিশ্ব

শিশুরাই গড়ে তুলবে আগামীর আলোকিত মানবিক বিশ্ব

তাজা খবর:

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, পরমত সহিষ্ণুতা, সবার সঙ্গে মিলে মিশে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান এবং দেশপ্রেমের মতো মৌলিক মূল্যবোধ শিশুদের চিন্তা ও মননে গেঁথে দিলে তারাই গড়ে তুলবে আগামীর আলোকিত মানবিক বিশ্ব।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ‘বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২১’ এর সমাপনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সব সুবিধা গ্রহণ করতে হলে শিশুদের ছোটবেলা থেকেই দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। তিনি আরও বলেন, জাতিসংঘ ঘোষিত ‘শিশু অধিকার সনদ’ গৃহীত হওয়ার ১৭ বছর আগে বাহাত্তরের সংবিধানে বঙ্গবন্ধু শিশুদের কথা অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন যার ২৮ অনুচ্ছেদে পিছিয়ে পড়া শিশুদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা বা আইন প্রণয়নের বিষয় বিবৃত আছে।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আয়োজিত এবারের ‘বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২১’ বিশেষভাবে গুরুত্ববহ। তাই স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনাদর্শ নিজেদের জীবনে প্রতিফলন ঘটানোর জন্য তিনি কোমলমতি শিশুদের প্রতি আহ্বান জানান।

স্পিকার আরও বলেন, ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সঠিকভাবে জেনে শিশুদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য পাঠ করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমির চেয়ারম্যান লাকী ইনাম।

সবশেষে ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী কোমলমতি শিশুদের পরিবেশনায় ‘বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০২১’ এর সমাপনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *