সরকারি হাসপাতালে চালু হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’

সরকারি হাসপাতালে চালু হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’

তাজা খবর:

আমাদের সবার উচিৎ বাংলাদেশকে জানা এবং দেশের ইতিহাস জানা। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ হলো বাংলাদেশের ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ। আর তাই দেশকে জানার পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধ এবং বঙ্গবন্ধুকে জানতে হবে।

এমন ভাবনা থেকেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীকে আরো তাৎপর্যপূর্ণভাবে স্মরণীয় করে রাখতে দেশের সকল সরকারি হাসপাতালে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ নামে হেল্প সেন্টার চালু করার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। গত ৫ জানুয়ারি সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত কর্মপরিকল্পনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

এছাড়াও সভায় প্রাথমিকভাবে প্রতিটি সরকারি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে অন্তত একটি করে দীর্ঘজীবী গাছ রোপণ, পরিচ্ছন্ন হাসপাতাল কর্মসূচি গ্রহণ, প্রত্যেক হাসপাতালে স্বাস্থ্য সহায়তার জন্য হেল্প ডেস্ক স্থাপন, ঢাকায় ৫টি বড় হাসপাতালে সমন্বিত জরুরি বিভাগ চালুকরণ এবং বিভাগীয় হাসপাতাল ও দেশের বৃহত্তর হাসপাতালগুলোর প্রতিটিতে কিডনি ডায়ালাইসিস চালু করতে উদ্যোগের ব্যাপারে একাত্মতা ঘোষণা করা হয়। পাশাপাশি দেশের ৮ বিভাগে শিশুদের জন্য বিনামূল্যে ইনসুলিন প্রদান করার ব্যাপারেও উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে জানানো হয়।

আলোচনায় মন্ত্রী জানান, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকীকে স্মরণীয় করে রাখতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দেশের গুরুত্বপূর্ণ সকল হাসপাতালে মানুষের স্বাস্থ্য ও তথ্য সহায়তা নিশ্চিত করতে আলাদা করে একটি বঙ্গবন্ধু কর্নার নামে হেল্প সেন্টার চালু করা হবে।’

‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ সম্পর্কে জানা যায় এতে স্থান পাবে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লেখা বিভিন্ন লেখকের প্রবন্ধ, বক্তৃতা, বিবৃতি, বাণী, নির্দেশ, সাক্ষাৎকার ও ছবি। বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর থাকবে বিভিন্ন তথ্যবহুল গ্রন্থ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও কর্মময় জীবনের ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে সঠিক ভাবে তুলে এটি বেশ কাজে আসবে আশাবাদী সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *