সাংবাদিকদের নিয়োগপত্র ছাড়া কাজ না করার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর

সাংবাদিকদের নিয়োগপত্র ছাড়া কাজ না করার আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর

নিউজ ডেস্ক:

সাংবাদিকদের নিয়োগপত্র ছাড়া কাজ না করার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে অডিটোরিয়াম হলরুমে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিকী সাধারণ সভা ২০২০ উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথি বক্তব্য এসব কথা বলেন তিনি।

হাছান মাহমুদ বলেন, অনেক প্রতিষ্ঠানে আমি দেখেছি সাংবাদিকদের নিয়োগপত্র দেয়া হয় না। মিডিয়াতে কাজ করতে গেলে নিয়োগপত্র ছাড়া কাজ করবেন না। কারণ নিয়োগপত্র ছাড়া যদি কেউ কাজ করেন তাহলে যেকোনো সময় যেকোনো কারণে ছাঁটাই করতে পারে।

তিনি বলেন, আমরা দেখছি ইদানিং নানা সূত্রে সাংবাদিকদের ছাটাই করা হচ্ছে। কাউকে ছাঁটাই করতে হলে আইন মেনে ছাঁটাই করতে হবে। একদিন সন্ধ্যাবেলায় একজনকে ছাঁটাই করে দেবেন, তা তো হয় না। আমি বলবো এ ধরনের ছাঁটাই আইনসম্মত নয়। যারাই মালিকপক্ষ তাদেরকে অনুরোধ জানাবো তারা যেন সংবাদকর্মীকে ছাঁটাই করে বিপদগ্রস্ত অবস্থায় না ফেলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন সাংবাদিক বান্ধব জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, গত ১০,১১,১২ বছরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পত্রিকা সংখ্যা কমেছে কিন্তু বাংলাদেশে এর সংখ্যা বেড়েছে। এই সরকার গণমাধ্যম বান্ধব হওয়ার কারণেই হয়েছে। সাংবাদিক সমাজের ব্যাপক পরিধি বৃদ্ধি পেয়েছে সঙ্গে সঙ্গে বেশ কিছু চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে চলছে। আমি সাংবাদিক না হলেও সংবাদকর্মী হিসেবে বহুদিন কাজ করেছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়ার পর তাদের সঙ্গে আলোচনা করে প্রথম থেকেই আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে আপনাদের সঙ্গে আছি। আপনাদের সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি এবং তা বাস্তবায়ন করেছি।

যে ওয়েজবোর্ড করা হয়েছে সেই ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এতে সাংবাদিক ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা উচিত। বিএনপি জামাতের সময় গণমাধ্যমকর্মীদের শ্রমিক বানিয়ে দেয়া হয়েছিল। এখন সেটি নিরসন করে গণমাধ্যম কর্মী করা হয়েছে। সবাই যেন সমান সুযোগ-সুবিধা পায় সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, বিদেশি চ্যানেলে বাংলাদেশি বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যে বিজ্ঞাপনগুলো বিদেশে চলে যাচ্ছিল সেই বিজ্ঞাপন গুলো যেন দেশীয় টেলিভিশন পায়। এখন তার বেনিফিট এরই মধ্যে পাওয়া শুরু করেছে আমাদের দেশের মিডিয়াগুলো।

খালেদা জিয়ার মুক্তি আদালতের বিষয় এখানে সরকারে কিছু করার নেই জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, আদালত খালেদা জিয়ার রায় দেবে এটা আদালতের ব্যাপার। এখানে সরকারের কিছু করার নেই। আদালত তাকে জামিন দেবে। আদালত যদি মনে করে দেবে না তাহলে কিছু করার নেই।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন ডিইউজে সভাপতি আবু জাফর সূর্যের সভাপতিত্বে উদ্ধোধনী অধিবেশনে উপস্থিত ছিলেন- বিএফইউজের সভাপতি মোল্লা জালাল, মহাসচিব শাবান মাহমুদ প্রমুখ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *