সাভারের আশুলিয়ায় তরুণ-তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

সাভারের আশুলিয়ায় তরুণ-তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

তাজা খবর:

ঢাকা জেলার সাভারের আশুলিয়ায় একটি কক্ষ থেকে তরুণ-তরুণীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুই জনই কুষ্টিয়া থেকে পালিয়ে এখানে এসে একটি ছোট কক্ষ ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন।

বুধবার (১১ আগস্ট) রাত ৮ টার দিকে আশুলিয়ার পল্লিবিদ্যুতের ডেন্ডাবর এলাকার আলমঙ্গীরের বাসার একটি ছোট কক্ষ থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন-কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী থানার মনোহরপুর গ্রামের হাতেম আলীর ছেলে টুটুল (২৭) ও একই জেলার ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় থানার চররাধানগর গ্রামের বাদল আলীর মেয়ে মারিয়া খাতুন (১৫)। টুটুলের গ্রামে স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, গত ২২ জুন মারিয়া নিখোঁজ হয়। পরে ২৪ জুন মারিয়ার পরিবার ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ধারণা করা হচ্ছে তাদের দুই জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এরই ধারাবাহিকতায় তারা বাসা থেকে পালিয়ে গত ১৯ জুলাই আশুলিয়ার ওই এলাকায় টুটুলের চাচাতো বোনের কাছে আসে। পরে ডেন্ডাবর এলাকার আলমগীরের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে বসবাস শুরু করেন। আজ সন্ধ্যায় তাদের কক্ষে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে থানায় খবর দেয় প্রতিবেশিরা। খবর পেয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে তাদের দুই জনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক শফিউল্লাহ জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি টুটুল ও মারিয়া তাদের এলাকা থেকে পালিয়ে এসে এখানে বসবাস শুরু করেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি আত্মহত্যা। তবে ময়নাতদন্তের পর মারা যাওয়ার কারন নিশ্চিত হওয়া যাবে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *