সাভারের আশুলিয়ায় বাড়ির উঠানে ৫ জনের লাশ

সাভারের আশুলিয়ায় বাড়ির উঠানে ৫ জনের লাশ

তাজা খবর:

নরসিংদীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন একই পরিবারের ৫ জন। তাদের স্থায়ী নিবাস আশুলিয়ায় আনা হয়েছে মরদেহ। একই পরিবারের ৫ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় পুরো গ্রামে এখন শোকের ছায়া। নিহতদের এক পলক দেখতে শত শত মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন ওই বাড়িতে।

রোববার (২০ জুন) সকালে নিহতদের দুই জনকে প্রথম গ্রামের বাড়ি আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিয়নে আনা হয়। পরে বিকেলে বাকি ৩ জনের মরদেহ লাশবাহী গাড়িতে করে আনা হয়। একই পরিবারের আরও ৪ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এই বাড়িতে কাঁদার মত কোন লোকজনও বর্তমানে নেই। নিহতদের আসরের নামাজের পরে দাফনের কাজ সমাপ্ত করা হয়।

এর আগে শনিবার (১৯ জুন) দিবাগত রাতে নরসিংদী জেলার পাঁচদোনা ঘোড়াশাল টঙ্গী আঞ্চলিক সড়কের সাকুড়ার মোড়ে দ্রুতগামী ট্রাক ও মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই মারা যায় তিনজন। বাকিদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিলে আরও দুই জন মারা যান।

নিহতরা হলেন- একই পরিবারের তিন ভাইয়ের স্ত্রী, সন্তান ও শাশুড়ী। তারা হলো সাভার উপজেলার আশুলিয়ার জিরাবো এলাকার সাইফুলের স্ত্রী মুক্তি আক্তার (৩০) ও তাঁর ছেলে সাদেকুল (৮), রশিদের স্ত্রী রুবি আক্তার (৩৩) ও তাঁর মেয়ে রাহিমা (৫) এবং হারুনের শাশুড়ী রোকেয়া বেগম (৫২)। এ ঘটনায় রাহিমার বাবা রশিদও আহত হয়েছেন।

দুর্ঘটনাকবলিত মাইক্রোবাস থেকে বেঁচে ফেরা মো রবিউল ইসলাম জানান, তারা গত শুক্রবার রাত তিনটার দিকে আশুলিয়া থেকে রওনা করেন সিলেটের মাজারের উদ্দেশ্যে। সেখান থেকে শনিবার সন্ধ্যায় বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। পরে নরসিংদী জেলার পাঁচদোনা ঘোড়াশাল টঙ্গী আঞ্চলিক সড়কের সাকুড়ার মোড়ে দ্রুতগামী ট্রাক ও মাইক্রোবাসকে ওভারটেক করতে গিয়ে সংঘর্ষ হয়।

রবিউল ইসলাম বলেন, একটি ট্রাক আমাদের গাড়িকে ওভারটেক করতে গিয়ে আমাদের গাড়ির পেছনে ধাক্কা লাগিয়ে দেয়। গাড়ির পিছনের দুই সিটের ৫ জন মারা যায়। সামনের সবাই সামান্য আহত হই। আরও ৪ জন গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *