সাভারে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা, গ্রেফতার ১

সাভারে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা, গ্রেফতার ১

তাজা খবর:

ঢাকা জেরার সাভারে মজিদপুর এলাকায় ঘরে ঢুকে এক কিশোরীর হাত-পা বেঁধে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী জসিম নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার (০১ জুন) ভোরে অভিযুক্ত জসিমকে আটক করে পুলিশ। এর আগে গত ২৬ মে ভুক্তভোগীর পরিবার সাভার মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দেয়। পরে মামলা তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুরে আদালতে পাঠায় পুলিশ। দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ এনামুল।

গ্রেফতার জসিম সাভার পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ডের মজিদপুরের আফজাল হোসেনের ছেলে।

ভুক্তভোগী কিশোরীর মা জানান, অন্যান্য দিনের মতো গত ২৫ মে সকালে বাসায় মেয়েকে একা রেখে পোশাক কারখানায় কাজ করতে যান তিনি।

পরে রাতে বাসায় ফিরে ঘর অন্ধকার দেখে মেয়েকে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন তিনি। কিছুক্ষণ পর ঘরে ফিরে ঘরের বাতি জ্বালিয়ে দেখতে পান হাত-পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় তার মেয়ে ঘরের খাটের নিচে পড়ে আছে। পরে মেয়ের হাত পায়ের বাধন খুলে মেয়েকে চিকিৎসার জন্য সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ জসিম নামে এক প্রতিবেশী যুবক তার কিশোরী মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। ওই যুবকের প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় অভিযুক্ত যুবক গত ২৫ মে রাতে তার অবর্তমানে বাসায় ঢুকে মেয়েকে একা পেয়ে ওড়না দিয়ে তার মেয়ের হাত-পা ও মুখ বেঁধে তাকে ধর্ষণ চেষ্টা ও শ্লীলতাহানি করে।

ভুক্তভোগী কিশোরী বলেন, ঘটনার দিন রাতে অভিযুক্ত যুবক জসিম তার ঘরে ঢুকে ওই কিশোরীর মাথায় আঘাত করে। পরে ওড়না দিয়ে হাত-পা ও মুখ বেঁধে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা ও বিভিন্ন ভাবে যৌন নির্যাতন করে। এক পর্যায়ে ভুক্তভোগীর শরীর থেকে রক্তক্ষরণ শুরু হলে অভিযুক্ত ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায়।

সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো: এনামুল বলেন, রাতভর অভিযান চালিয়ে ভোরে জসিমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভুক্তভোগীর পরিবারের অভিযোগ আমলে নিয়ে করা মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *