সাভারে কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে গুরুত্বর আহত ২

সাভারে কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে  গুরুত্বর আহত ২

তাজা খবর:

রাজধানীর সন্নিকটে সাভার পৌর-এলাকার মধ্যপাড়ায় কিশোর গ্যাংয়ের ছুরিকাঘাতে সুমন রাজবংশী(২৭) ও শিমুল (২২) নামের দুইজন গুরুত্বর আহত হয়েছে। হামলার শিকার দুইজনই মুমূর্ষু অবস্থায় সাভার এনাম মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে সাভার মধ্যপাড়া এলাকার মাইটা মন্দিরে সরস্বতীপূজার অনুষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গুরুত্বর জখম সুমনের ভাবি জোসনা রাজবংশী সাত জনের নাম উল্লেখসহ আরো ১০/১৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে সাভার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযুক্তরা হলো, মালেকের ছেলে মাহবুব (২০), আতাউর মাস্টারের ছেলে মোঃ আল আমিন (১৯), মোঃ মামুন (২৮), মালেকের ছেলে মোঃ মুন্না (২৩), মোঃ পারভেজ (২০), মোঃ সাগর (১৮), মোঃ নাঈম (১৯)। এরা প্রায় সবাই সাভার পৌর-এলাকার কাজী মোকমাপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়রা দাবি করেছেন, চাঞ্চল্যকর নীলা হত্যা কান্ডের ঘটনায় সম্পৃক্ত কিশোর গ্যাং এরা একই একই কিশোর গ্যাং গ্রুপের সদস্য।

অভিযোগে ঘটনার বিবরণে প্রকাশ করা হয় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় সরস্বতী পূজা চলাকালে স্থানীয় বখাটে আলামিন, মাহাবুব, মামুন, মুন্না, রাব্বি, পারভেজ, নাঈম, সাগরসহ কয়েকজন মধ্যপাড়া মাইটা মন্দিরের সামনে মদ্যপ অবস্থায় অশ্লীল চিৎকার চেঁচামেচি করে। মন্দিরে পূজা করতে যাওয়া সনাতন ধর্মালম্বী নারী এবং পুরুষ এর প্রতিবাদ করেন। উত্তেজিত বখাটেরা একপর্যায়ে চাকু এবং ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাদের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে। এ সময় ঘটনায় আহত সুমন রাজবংশী (২৭) কিছু বুঝে ওঠার আগেই অভিযুক্ত মাহাবুবের হাতে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে সুমনকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার পেটে আঘাত করে। এর পর আল আমিন সুমনকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার পিঠে ছুরি দিয়ে আঘাত করে মারাত্বক জখম করে। এ অবস্থা দেখে সুমনের আত্মীয় শিমুল (২২) সুমনকে রক্ষার জন্য এগিয়ে আসলে অভিযুক্ত মামুন ও মুন্না তাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। ছুরিকাঘাত এবং ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত সুমন এবং শিমুলকে প্রথমে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। আহতদের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি মামলা দায়ের এর প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *