সাভারে তুরাগ নদী উদ্ধার হলো উপজেলা চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে

সাভারে তুরাগ নদী উদ্ধার হলো উপজেলা চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে

তাজা খবর:

রাজধানীর সন্নিকটে সাভারে তুরাগ নদীর মাটি কেটে বিক্রি করার খবর পেয়ে অভিযান পরিচালনা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

সোমবার ( ৫ এপ্রিল) দুপুরে সাভারের আমিনবাজারের সালেহপুর এলাকায় তুরাগ নদীতে অভিযান পরিচালনা করেন সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছে, দেশে মহামারী করোনা ভাইরাস ও লকডাউনের মধ্যে আমিনবাজার এলাকার কয়েকজন কতিপয় ভূমিদস্যু ব্যক্তি প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে ভেকু দিয়ে তুরাগ নদীর মাটি কেটে বিভিন্ন ইটভাটায় বিক্রি করছে ও নদীর পানি প্রবাহ বন্ধ করে বাধ নির্মাণ করছে ।

এমন খবর পেয়ে অভিযান পরিচালনা করেন সাভার উপজেলা চেয়ারম্যান মন্জুরুল আলম রাজীব । এসময় উপজেলা চেয়ারম্যানের উপস্থিতির খবর পেয়ে দখলকারীরাসহ ও ভেকুর ড্রাইভাররা পালিয়ে যায়।

পরে সেখানে উপস্থিত হয়ে ভেকু দিয়ে কেটে রাখা মাটি, কয়েকদিন মধ্যে বিভিন্ন স্থানে আমিনবাজার ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলামকে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেন সাভার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ। পরে জলাশয় ভরাট করে বাধ দেওয়ার অভিযোগে তুরাগ এলাকায় সাদেক এগ্রোতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এবিষয়ে সাভার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ বলেন,নদী দখলকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা ও তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হবে।

এবিষয়ে সাভার উপজেলা চেয়ারম্যান মন্জুরুল আলম রাজীব বলেন, সরকারী সম্পত্তি কেউ দখল করতে চাইলে , তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সকালে খবর পেয়েই প্রসাশনের লোকজন নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করলাম । কতিপয় ভূমিদস্যু প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে ভেকু দিয়ে তুরাগ নদীর মাটি কেটে বিভিন্ন ইটভাটায় বিক্রি করছে ও নদীর পানি প্রবাহ বন্ধ করে বাধ নির্মাণ করছে । এটা অন্যায় সরকারী সম্পত্তি কেউ এভাবে বিক্রি করতে পারে না।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী লিয়াকত হোসেন সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *