সাভারে শিকলে বাঁধা যুবককে ২ বছর পর উদ্ধার করলেন ইউপি চেয়ারম্যান। তাজা খবর

সাভারে শিকলে বাঁধা যুবককে ২ বছর পর উদ্ধার করলেন ইউপি চেয়ারম্যান। তাজা খবর

তাজা খবর:

ঢাকার অদূরে সাভারে মানসিক ভারসাম্যহীন ও মাদকাসক্তর কথা বলে এক যুবককে প্রায় দুই বছর ধরে হাতে-পায়ে লোহার শিকল পরিয়ে একটি ভাঙ্গা ঘরে আটকে রেখে ছিলেন তার নিজের মা। খবর পেয়ে এলাকার চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই যুবককে বন্দিদশা থেকে মুক্ত করেন এবং তাকে তার মায়ের কাছে থাকার সুব্যবস্থা করেন। শুক্রবার দুপুরে সাভার উপজেলার কাউন্দিয়া ইউনিয়নের কুমারবাড়ি এলাকা থেকে শিকল বন্দি ওই যুবককে উদ্ধার করে ইউপি চেয়ারম্যান হাজী আতিকুর রহমান খাঁন শান্ত।

উদ্ধার হওয়া ভুক্তভোগী যুবকের নাম মোহম্মদ টিপু (২৬) সে উপজেলার কাউন্দিয়া ইউনিয়নের কুমারবাড়ি এলাকার মোঃ মহসিনের ছেলে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, কাউন্দিয়া ইউনিয়নের কুমারবাড়ি গ্রামে মোঃ টিপু নামের ওই যুবককে পরিবারের অবহেলায় প্রায় দুই বছর ধরে হাতে-পায়ে লোহার শিকল পড়িয়ে একটি ভাঙ্গা ঘরের ভিতর বেঁধে রাখে। খবর পেয়ে শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে ইউপি চেয়ারম্যান হাজী আতিকুর রহমান খান শান্ত ছেলেটিকে উদ্ধার করেন। পরে নাপিত ডেকে ছেলেটির চুল কেটে সুন্দর করে নিজ হাতে গোসল করিয়ে খাবার খাইয়ে দেন এবং তার ভরণপোষণ ও চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়ে সাধারণ জীবনে ফিরিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

কাউন্দিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাজী আতিকুর রহমান খাঁন শান্ত বলেন, গত দুই বছর ধরে ছেলেটিকে একটি ঘরের ভিতরে শিকল বন্দী করে রাখা হয়েছে জানতে পেরে আমি লোকজন নিয়ে তাকে উদ্ধার করি। এসময় তার সাথে কথা বলে স্বাভাবিক মনে হওয়ায় বেদে এনে তার পায়ের শিকল খুলে দেয়ার ব্যবস্থা করি। পরে নাপিত ডেকে তার চুল দাড়ি কেটে গোসল করানো হয়েছে এবং খাবার খাইয়ে বাসায় বিশ্রামের জন পাঠানো হয়েছে। এছাড়া যেহেতু ছেলেটি আগে পরিবহনে কাজ করতো তাই সে যদি ভালো হয় এবং তার পরিবার যদি যায় তাকে একটি অটোরিক্সা দিয়ে পুনর্বাসন করে দিবো বলে কথা দিয়েছি। এর মধ্যে টিপুর যদি কোনো রকম সমস্যার সৃষ্টি করে তাহলে তার মাকে বিষয়টি আমাকে জানানোর জন্য বলেছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *