সিসিকে অবৈধ পানির লাইন বিচ্ছিন্ন, ২০ লাখ টাকা জরিমানা

সিসিকে অবৈধ পানির লাইন বিচ্ছিন্ন, ২০ লাখ টাকা জরিমানা

সিলেট নগরের ২৭টি ওয়ার্ডে পানি সরবরাহ করে থাকে সিটি করপোরেশন। কিন্তু অনেকেই ব্যক্তিগত পানির পাম্প (মটর) ব্যবহার করে অতিরিক্ত পানি সংগ্রহ করায় সাধারণ মানুষ পর্যাপ্ত সরবরাহ পায় না বলে দীর্ঘদিনের অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও নগরের অনেক বাসিন্দাই দীর্ঘদিন ধরে পানির বিল পরিশোধ করেনি বলেও অভিযোগ রয়েছে।

এসব অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নির্দেশে গত এক সপ্তাহে নগরীর ৪টি ওয়ার্ডে অভিযান চালিয়ে শতাধিক অবৈধ পানির লাইন বিচ্ছিন্ন ও ২০ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করেছে সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)।

সিসিকের জনসংযোগ শাখা জানায়, গত ১৭ নভেম্বর নগরীর ২, ৫, ১৮ ও ২৩ নং ওয়ার্ডে শুরু হয় অবৈধ পানি সংযোগের বিরুদ্ধে অভিযান। ধারাবাহিকভাবে নগরীর ২৭টি ওয়ার্ডেই এ অভিযান পরিচালনা করা হবে। অভিযান চলাকালে তাৎক্ষণিক জরিমানা আদায় সাপেক্ষে সংযোগ বৈধকরণের সুযোগও দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া বকেয়া বিল আদায়, হাফ ইঞ্চি পানির লাইনের বদলে অতিরিক্ত মাপের পাইপ ব্যবহার না করা ও আবাসিক বাসা-বাড়িতে পানির লাইন নিয়ে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার বন্ধে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে সিসিকের জনসংযোগ দপ্তর।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *