হেমায়েতপুর-ভাটারা মেট্রোরেল নির্মাণের উদ্যোগ

হেমায়েতপুর-ভাটারা মেট্রোরেল নির্মাণের উদ্যোগ

তাজা খবর:

ঢাকা মহানগরীর পূর্ব-পশ্চিমে সংযোগ বাড়াতে আরও একটি মেট্রোরেল রুট নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার। হেমায়েতপুর থেকে গাবতলী-মিরপুর ১০-কচুক্ষেত-বনানী-গুলশান ২ হয়ে ভাটারা পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ এই রুটের বিস্তারিত নক্সা প্রণয়ন ও নির্মাণকাজ তদারকির জন্য পরামর্শক নিয়োগের চুক্তি সই হয়েছে।

বুধবার এ চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে চুক্তিস্বাক্ষর অনুষ্ঠানে নিজ বাসভবন থেকে যুক্ত হন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি একইভাবে এ অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে ঢাকা মহানগরী ও পার্শ্ববর্তী এলাকার যানজট নিরসনে উড়াল ও পাতালসহ মেট্রোরেলের ছয়টি রুট নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার। হেমায়েতপুর থেকে ভাটারা পর্যন্ত রুট-৫’র নর্দার্ন অংশের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ এ রুটে সাড়ে ১৩ কিলোমিটার পাতাল এবং সাড়ে ৬ কিলোমিটার হবে উড়াল। এ রুটটি নির্মাণে প্রায় ৪১ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে। এর মধ্যে জাপান সরকারের অর্থায়ন হবে প্রায় ২৯ হাজার কোটি টাকা।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত নির্মাণাধীন মেট্রো রুট-৬’র কাজের শতকরা ৪৫ ভাগ শেষ হয়েছে। সম্প্রতি কাজের গতি আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। ইতোমধ্যে এ রুটে ১০ কিলোমিটার ভায়াডাক্ট (সেতুতে ওঠার পথ) এবং এক কিলোমিটার রেললাইন স্থাপন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, জীবন ও জীবিকাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে গণমুখী ও কল্যাণমুখী বাজেট জাতীয় সংসদে আজ উত্থাপিত হতে যাচ্ছে।

প্রায় এক হাজার ছয় শ’ কোটি টাকার চুক্তিপত্রে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক এবং পরামর্শক প্রতিষ্ঠানগুলোর পক্ষে জাপানের নিপ্পন কোয়ি কোম্পানি লিমিটেডের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক কেন নিশিনো ও ওরিয়েন্টাল কনসালটেন্টস গ্লোবাল কোম্পানি লিমিটেডের সভাপতি ঈজি ইওনেযাওয়া স্বাক্ষর করেন।

সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মোঃ নজরুল ইসলাম, বাংলাদেশে জাইকার চীফ রিপ্রেজেন্টেটিভ ইউহো হায়াকাওয়াসহ মেট্রোরেলের বিভিন্ন রুটের প্রকল্প পরিচালক, প্রকৌশলী, কর্মকর্তা এবং পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন।

ফখরুলের মন্তব্য সত্যের অপলাপ ॥ ভিডিও বার্তায় বাজেট প্রণয়নে পরামর্শ নেয়া হয় না- বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন মন্তব্য ‘সত্যের অপলাপ’ মাত্র বলে মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, জীবন ও জীবিকার বিষয়কে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে গণমুখী ও কল্যাণমুখী বাজেট আজ জাতীয় সংসদে উত্থাপিত করা হবে।

তিনি বলেন, বাজেট প্রণয়নের আগে দীর্ঘসময় নিয়ে অংশীজনদের মতামত, পরামর্শ এবং অর্থনীতিবিদদের অভিজ্ঞতা ও পার্টির ইশতেহারের সঙ্গে সমন্বয় করেই বাজেট প্রণয়ন করা হবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবার মতামত নিয়েই যেকোন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সরকার ও দলের অভ্যন্তরে সবার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেই (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) সিদ্ধান্ত নেন। দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে একমাত্র আওয়ামী লীগেই গণতন্ত্র চর্চা হয়’।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার প্রকল্প পদ্মা সেতুর কাজ এগিয়ে চলছে। আজ সেতুর ৩১তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে সেতুর চার হাজার ৬৫০ মিটার দৃশ্যমান হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *