৭ দিনে ১৭৬ কোটি টাকার ভ্রাম্যমাণ প্রাণিজপণ্য বিক্রি

৭ দিনে ১৭৬ কোটি টাকার ভ্রাম্যমাণ প্রাণিজপণ্য বিক্রি

তাজা খবর:

করোনা সংকটে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান বিক্রয় কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রাণিজপণ্য (দুধ, ডিম ও পোল্ট্রি) বিক্রিতে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। একইসাথে উদ্যোগটি খামারি ও ভোক্তাদের নিকট প্রশংসিত হচ্ছে। প্রাণিসম্পদ দপ্তরসমূহের তত্ত্বাবধানে গত ২৫ এপ্রিল থেকে ১ মে পর্যন্ত একসপ্তাহে ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্রের মাধ্যমে সারাদেশে খামারিগণ তাদের উৎপাদিত ১৭৬ কোটি ২৭ লক্ষ ৭০ হাজার ৪৮ টাকার দুধ, ডিম ও পোল্ট্রি বিক্রি করেছে। এর মধ্যে ১ কোটি ২৯ লক্ষ ৭৩ হাজার ৭ শত ৬ লিটার দুধ, ৫ কোটি ৫২ লক্ষ ১৩ হাজার ৯ শত ৩১টি ডিম, ৬৬ লক্ষ ২ হাজার ৩ শত ৬৯টি মুরগি এবং ৫ লক্ষ ৭৫ হাজার ৭ শত ৮৮টি বিক্রি হয়েছে।

এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন শুক্রবার (১ মে) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরে স্থাপিত নিয়ন্ত্রণকক্ষ থেকে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২২ এপ্রিল দেশের প্রান্তিক পর্যায়ের চাষী, খামারি এবং উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত মাছ, দুধ, ডিম ও পোল্ট্রি সুষম সরবরাহ ও বাজারজাত করার উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সকল জেলা ও উপজেলায় কর্মরত মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের নির্দেশনা প্রদান করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

করোনা পরিস্থিতিতে বাজারজাতকরণ সংকটে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত উৎপাদক, খামারি ও উদ্যোক্তাদের কথা মাথায় রেখে এবং ভোক্তাদের প্রাণিজ পণ্য প্রাপ্তির চাহিদা বিবেচনা করে এ নির্দেশনা প্রদান করা হয়। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সংশ্লিষ্ট অ্যাসোসিয়েশন, উদ্যোক্তা ও খামারিদের সহযোগিতায় স্থানীয় প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে এ উদ্যোগ গ্রহণের জন্য বলা হয় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *